বাংলাদেশ বিষয়াবলি

কালানুক্রমিক ঘটনাবলি

৪.১২.২১

♦ মুজিববর্ষ এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে ঢাকায় দুই দিনব্যাপী বিশ্ব শান্তি সম্মেলন শুরু।

৯.১২.২১

♦ জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে (UNGA) বাংলাদেশের উত্থাপন করা ‘শান্তির সংস্কৃতি’ রেজুলেশন সর্বসম্মতিক্রমে গৃহীত।

১০.১২.২১

♦ মুক্তিযোদ্ধা-এর ইংরেজি প্রতিশব্দ Heroic Freedom Fighter ব্যবহার করা সংক্রান্ত গেজেট প্রকাশ।

১১.১২.২১

♦ দেশের করোনার নতুন ধরন ওমিক্রন শনাক্ত।

১২.১২.২১

♦ প্রথমবারের মতো উত্তরা থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত পরীক্ষামূলক চলাচল করে মেট্রোরেল।

♦ দেশে পরীক্ষামূলক 5G সেবা চালু আন্তর্জাতিক ইসরায়েলের প্রথম প্রধানমন্ত্রী হিসেবে সংযুক্ত আরব আমিরাত সফরে যান নাফতালি বেনেত।

১৫.১২.২১

♦ তিন দিনের সফরে বাংলাদেশে পৌঁছেন ভারতের রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ।

♦ আন্তর্জাতিক রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ও চীনের প্রেসিডেন্ট সি চিন পিংয়ের মধ্যে বৈঠক অনুষ্ঠিত।

১৬.১২.২১

♦ বিজয়ের সুবর্ণজয়ন্তী পালিত। মুজিববর্ষের সমাপ্তি ঘটে।

২৩.১২.২১

♦ বাংলাদেশ বাংলাদেশ ও মালদ্বীপের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় সহযোগিতা বাড়াতে একটি চুক্তি এবং দুটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত।

১৯.১২.২১

♦ দেশে করোনাভাইরাসে বুস্টার ডোজ দেওয়া শুরু।

১৯.১২.২১

♦ বাংলাদেশ টেলিভিশন চট্টগ্রাম কেন্দ্র ২৪ ঘণ্টা সম্প্রচার শুরু করে।

২৬.১২.২১

♦ ঢাকা নগর পরিবহন- এর যাত্রা শুরু। চতুর্থ থাপের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচন অনুষ্ঠিত।

 আলোচিত বাংলাদেশ

5G যুগে বাংলাদেশ

১২ ডিসেম্বর, ২০২১ ঢাকাসহ দেশের ছয় এলাকায় পঞ্চম প্রজন্মের মোবাইল নেটওয়ার্ক সেবা 5G চালু হয়। রাষ্ট্রায়ত্ত সেলফোন অপারেটর টেলিটকের হাত ধরে বাংলাদেশে 5G’র যাত্রা শুরু হয়। পরীক্ষামূলক চালু হওয়া 5G সেবার আওতায় আসে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, ধানমন্ডি ৩২, বাংলাদেশ সচিবালয়, মানিক মিয়া এভিনিউ (সংসদ ভবন এলাকা), সাভারের জাতীয় স্মৃতিসৌধ এলাকা ও টুঙ্গিপাড়া। বাংলাদেশে পরীক্ষামূলক 5G প্রযুক্তি চালু করতে টেলিটককে সহায়তা করছে হুয়াওয়ে ও নকিয়া। বিশ্বে 5G প্রযুক্তি চালুর দুই বছরের মধ্যে বাংলাদেশেও এ প্রযুক্তি চালু হলো। এ প্রযুক্তির মাধ্যমে সেলফোনের গ্রাহকরা অধিকতর উন্নত গুণগতমানের ভয়েস কল এবং 4G থেকে বহুগুণ দ্রুত মোবাইল ইন্টারনেট ব্যবহারে সক্ষম হবে। এ প্রযুক্তির মাধ্যমে ঢাকায় বসে প্রত্যন্ত অঞ্চলে রোবটের মাধ্যমে রোগীর সার্জারি করা যাবে। ড্রাইভারবিহীন গাড়ি চালানো যাবে। স্মার্ট ফ্যাক্টরি স্থাপনের মাধ্যমে স্বয়ংক্রিয় উৎপাদন সক্ষমতা অর্জন করে উৎপাদনশীলতা বাড়ানো যাবে।

 

গাজীপুর উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ

২২ নভেম্বর, ২০২১ গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. হেমায়েত হোসেনকে আর্থিক ও প্রশাসনিক ক্ষমতাসহ গাজীপুর উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান পদে অতিরিক্ত দায়িত্ব প্রদান করে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। চেয়ারম্যান পদায়ন না হওয়া পর্যন্ত তিনি আর্থিক ও প্রশাসনিক ক্ষমতাসহ অতিরিক্ত দায়িত্ব হিসেবে এ পদে দায়িত্ব পালন করবেন। এর মাধ্যমে গাজীপুর সিটি করপোরেশন এলাকার পরিকল্পিত ও সমন্বিত উন্নয়নের লক্ষ্যে গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের অধীন নতুন সংস্থা হিসেবে আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু করে গাজীপুর উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ। উল্লেখ্য, ৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০ জাতীয় সংসদে গাজীপুর উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ আইন পাস হয়।

 অন্য ৫ নগর উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ

নাম

প্রতিষ্ঠা
রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক)১৯৫৬
চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (CDA)১৯৫৯
খুলনা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (KDA)২১ জানুয়ারি, ১৯৬১
রাজশাহী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (RDA)১৯ অক্টোবর, ১৯৭৬
কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (CoxDA)১৭ আগস্ট, ২০১৬

 

বীর মুক্তিযোদ্ধা ইংরেজি প্রতিশব্দ

এখন থেকে ‘বীর মুক্তিযোদ্ধা’-এর ইংরেজি প্রতিশব্দ Heroic Freedom Fighter ব্যবহার করতে হবে। ১০ ডিসেম্বর, ২০২১ মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয় থেকে এ সংক্রান্ত গেজেট প্রকাশ করে। এর আগে ২০ অক্টোবর, ২০২০ সবক্ষেত্রে মুক্তিযোদ্ধাদের নামের আগে ‘বীর’ শব্দ ব্যবহারের বিধান করে গেজেট প্রকাশ করা হয়। গেজেটে বলা হয়, ‘বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্ট আইন, ২০১৮’ -এর ধারা ২(১১) এ মুক্তিযোদ্ধাদের ‘বীর মুক্তিযোদ্ধা’ হিসেবে সংজ্ঞায়িত করা হয়েছে।

 

UGC’ প্রফেসর

২৫ নভেম্বর, ২০২১ বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (UGC) দেশের তিনজন খ্যাতিমান শিক্ষক ও গবেষককে প্রফেসর হিসেবে নিয়োগ দেয়। তারা হলেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের রসায়ন বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক ড. শরীফ এনামুল কবির, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্ডিওলজি বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক ডা. সজল কৃষ্ণ ব্যানার্জি এবং বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃষিবিদ্যা বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক ড. সুলতান উদ্দিন ভূঁইয়া। আগামী দুই বছরের জন্য UGC’র প্রফেসর হিসেবে এ তিন বিশিষ্ট গবেষক দায়িত্ব পালন করবেন। অধ্যাপক শরীফ এনামুল কবির জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে এবং অধ্যাপক সজল কৃষ্ণ ব্যানার্জি ও অধ্যাপক সুলতান উদ্দিন ভূঁইয়া নিজ নিজ বিশ্ববিদ্যালয়ে সংযুক্ত থেকে গবেষণা কর্মকাণ্ড পরিচালনা করবেন।

 

পদ্মা সেতু ঘিরে নতুন এক্সপ্রেসওয়ে

পদ্মা সেতুকে কেন্দ্র করে রাজধানীর পূর্ব-পশ্চিমকে সংযোগ করতে তৈরি হচ্ছে এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে। প্রায় ১৬,৪০০ কোটি টাকায় নির্মিতব্য এক্সপ্রেসওয়ের নাম ‘ঢাকা ইস্ট-ওয়েস্ট এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে’। প্রকল্পটি পাবলিক প্রাইভেট পার্টনারশিপের (PPP) আওতায় বাস্তবায়ন করা হবে। ৮ ডিসেম্বর, ২০২১ অর্থনৈতিক বিষয়-সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি এর নীতিগত অনুমোদন দেয়। প্রস্তাবিত, ‘ঢাকা ইস্ট-ওয়েস্ট এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে’ প্রকল্পটি জাতীয় মহাসড়ক N5 বা ঢাকা-আরিচা, N8 বা ঢাকা-মাওয়া এবং N1 বা ঢাকা-চট্টগ্রাম সড়কের সঙ্গে যুক্ত হবে। এটি বাস্তবায়িত হলে চট্টগ্রাম-সিলেটসহ পূর্বাঞ্চল ও দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলের বিভিন্ন জেলার যানবাহনগুলো পদ্মা সেতু হয়ে ঢাকা শহরে প্রবেশ না করে উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের ২০টি জেলায় সরাসরি চলাচল করতে পারবে। এর ফলে ঢাকা ও এর পার্শ্ববর্তী এলাকার যানজট অনেক কমে যাবে। এশিয়ান হাইওয়ের সঙ্গেও সংযুক্ত হবে ইস্ট ওয়েস্ট এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে। প্রস্তাবিত ‘এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে স্ট্র্যাটেজিক ট্রান্সপোর্ট প্ল্যান’ বা এসটিপির আওতায় মিডল বা আউটার রিং রোডের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ। প্রকল্পের অ্যালাইনমেন্টটি ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের সাভারের হেমায়েতপুর-বলিয়ারপুর থেকে শুরু হয়ে নিমতলী-ফতুল্লা-ইকুরিয়া বন্দর হয়ে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের নারায়ণগঞ্জের লাঙ্গলবন্দ গিয়ে মিশবে।

 

একাদশ জাতীয় সংসদের ১৫তম অধিবেশন

শুরু: ১৪ নভেম্বর, ২০২১
সমাপ্তি: ২৮ নভেম্বর, ২০২১
বিল পাস: ৯টি
কার্যদিবস: ৯ দিন

বিলের নাম

পাস

বিরোধী দলীয় নেতা এবং উপনেতা (পারিতোষিক ও বিশেষাধিকার) বিল, ২০২১

১৬ নভেম্বর

বিশেষ নিরাপত্তা বাহিনী (স্পেশাল সিকিউরিটি ফোর্স) বিল, ২০২১

১৬ নভেম্বর

বাংলাদেশ হাউস বিল্ডিং ফাইনান্স কর্পোরেশন (সংশোধন) বিল, ২০২১

১৮ নভেম্বর

বাংলাদেশ ট্যুর অপারেটর ও ট্যুর গাইড (নিবন্ধন ও পরিচালনা) বিল, ২০২১

১৮ নভেম্বর

ব্যাংকার সাক্ষ্য বহি বিল, ২০২১

২৭ নভেম্বর

মহাসড়ক বিল, ২০২১

২৭ নভেম্বর

বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্টের বিচারক (পারিতোষিক ও বিশেষাধিকার) বিল, ২০২১

২৮ নভেম্বর

সুপ্রীম কোর্টের বিচারক (ভ্রমণ ভাতা) বিল, ২০২১

২৮ নভেম্বর

টেটেরিটোরিয়্যাল ওয়াটার্স এন্ড মেরিটাইম জোন (সংশোধন) বিল, ২০২১

২৮ নভেম্বর

 

পূর্ণাঙ্গ টেলিভিশন কেন্দ্র চট্টগ্রাম

১৯ ডিসেম্বর, ২০২১ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশ টেলিভিশন (BTV) চট্টগ্রাম কেন্দ্রের ২৪ ঘণ্টার সম্প্রচার উদ্বোধন করেন। ১৯ ডিসেম্বর ১৯৯৬ মাত্র চার ঘণ্টার সম্প্রচার দিয়ে যাত্রা শুরু করা বিটিভি চট্টগ্রাম কেন্দ্র বর্তমানে পূর্ণাঙ্গ টেলিভিশন কেন্দ্র। সম্প্রচার শুরুর ২০ বছর পর ৩১ ডিসেম্বর ২০১৬ সময়সীমা বেড়ে ৬ ঘণ্টায় উন্নীত করা হয়। এরপর ১৩ এপ্রিল ২০১৯ রু হয় ৯ ঘণ্টার সম্প্রচার। পরের বছর অর্থাৎ ২৬ জানুয়ারি ২০২০ দৈনিক সম্প্রচার বাড়িয়ে ১২ ঘণ্টা করা হয়। ১৮ জানুয়ারি ২০২১ তা উন্নীত হয় ১৮ ঘণ্টায়।

 

ধান গবেষণায় জিন বদলের সাফল্য

দেশের প্রধান খাদ্যশস্য ধান নিয়ে গবেষণায় নিরন্তর কাজ করে যাচ্ছে গাজীপুরে অবস্থিত বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট (BRRI)। তাদের অর্জনের তালিকায় যুক্ত হতে যাচ্ছে সফলতার আরেকটি পালক। ধানের জিনগত পরিবর্তনে BRRI’র বিজ্ঞানীরা প্রথম সফলতা অর্জন করেন। তাদের সফলতার পেছনে রয়েছে নোবেল পুরস্কারজয়ী বিজ্ঞানীদের উদ্ভাবিত ‘ক্রিসপার ক্যাস-৯’ পদ্ধতি। এটি মূলত ফসলের জিন পরিবর্তন করার আধুনিক ও বিতর্কমুক্ত একটি প্রযুক্তি। ‘ক্রিসপার ক্যাস-৯’ প্রযুক্তি উদ্ভাবনের জন্য ২০২০ সালে রসায়নে নোবেল পুরস্কার লাভ করেন জার্মান বিজ্ঞানী ইমানুয়েল চার্পেনিয়ার এবং যুক্তরাষ্ট্রের জেনিফার দোদনা। এর পর থেকেই বিশ্বজুড়ে ফসলের জাত উন্নয়নে কৃষিবিজ্ঞানীদের আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয় ‘ক্রিসপার ক্যাস-৯’ প্রযুক্তি। ২০২০ সালের রুতে BRRI’র উর্ধ্বতন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা কীটতত্ত্ববিদ ড. মো. পান্না আলীর নেতৃত্বে দেশের একদল বিজ্ঞানী এ প্রযুক্তি নিয়ে গবেষণা শুরু করেন। সম্প্রতি তারা সফলতা পান।

 

রাবির প্রথম বঙ্গবন্ধু চেয়ার অধ্যাপক

১১ ডিসেম্বর, ২০২১ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ৫০৯তম সিন্ডিকেট সভায় অধ্যাপক সনৎকুমার সাহাকে রাবি’র প্রথম ‘বঙ্গবন্ধু চেয়ার অধ্যাপক’ পদে মনোনীত করা হয়। তিনি রবীন্দ্র গবেষক ও রাবি’র অর্থনীতি বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক। বাংলাদেশ, বঙ্গবন্ধু, মুক্তিযুদ্ধ ও বাংলা সাহিত্য নিয়ে। গবেষণায় বিশেষ অবদানের জন্য আগামী দুই বছরের জন্য সনৎকুমার সাহাকে এ পদে মনোনীত করা হয়। প্রসঙ্গত, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে এই প্রথমবারের মতো ‘বঙ্গবন্ধু চেয়ার অধ্যাপক’ চালু করা হলো।

 

বঙ্গবন্ধুপিয়েরে ট্রুডো কৃষি প্রযুক্তি কেন্দ্র

গাজীপুরে বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট (BRRI) ক্যাম্পাসে ‘বঙ্গবন্ধু-পিয়েরে ট্রুডো কৃষি প্রযুক্তি কেন্দ্র’ স্থাপন হতে যাচ্ছে। বাংলাদেশ সরকারের সহযোগিতায় এ প্রযুক্তি কেন্দ্রটি স্থাপন করবে কানাডার ইউনিভার্সিটি অব সাসকাচুয়ানের গ্লোবাল ইনস্টিটিউট অব ফুড সিকিউরিটি (GIFS)। এর অংশ হিসেবে ৯ ডিসেম্বর ২০১১ কানাডার উচ্চ পর্যায়ের একটি প্রতিনিধি দল BRRI পরিদর্শন করেন। কৃর্ষিক্ষেত্রে উন্নততর গবেষণা, বৈশ্বিক জলবায়ু পরিবর্তনে সহনশীল খাদ্যনিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিতে গবেষণা কর্মকাণ্ড পরিচালনায় বাংলাদেশে ‘বঙ্গবন্ধু-পিয়েরে ট্রুডো কৃষি প্রযুক্তি কেন্দ্র’ স্থাপিত হতে যাচ্ছে।

 

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য বজ্রকণ্ঠ

৫ ডিসেম্বর ২০২১ সিলেট সেনানিবাসের মূল সড়ক অ্যাভিনিউ ১৭-তে উদ্বোধন করা হয় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য বজ্রকণ্ঠ। ভাস্কর্যটি উদ্বোধন করেন সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ। জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী স্মরণীয় করে রাখতে এরিয়া সদর দপ্তর, সিলেটের তত্ত্বাবধানে মুজিব চত্বরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্যটি স্থাপন করা হয়। মূল ভাস্কর্যটির উচ্চতা ১৫ ফুট এবং বেদির উচ্চতা ৬ ফুট।

 

বঙ্গবন্ধুর ছবির কপিরাইট শুধু রাষ্ট্রের

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছবি এবং স্বাধীনতাযুদ্ধকালীন ছবির কপিরাইট কোনো ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান দাবি করতে পারবে না। এগুলো রাষ্ট্রীয় সম্পত্তি। ১৪ ডিসেম্বর ২০২১ বিচারপতি মামনুন রহমান এবং বিচারপতি খোন্দকার দিলীরুজ্জামানের ডিভিশন বেঞ্চ এ রায় দেন। আদালত পর্যবেক্ষণে বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, তার পরিবার এবং মুক্তিযুদ্ধকালীন ঐতিহাসিক ছবির স্বত্ব কোনো ব্যক্তির নয়। এ স্বত্ব একমাত্র রাষ্ট্রের। বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে লেখা দুটি বইয়ের মেধাস্বত্ব চুরি ও গ্রন্থস্বত্ব জালিয়াতির ঘটনায় যমুনা টিভি সিনিয়র রিপোর্টার নাজমুল হোসেনের বিরুদ্ধে জারি করা রুল নিষ্পত্তি শেষে পর্যবেক্ষণসহ এ রায় দেন আদালত।

 

ব্রিটিশ ছায়া মন্ত্রিসভার সদস্য

৪ ডিসেম্বর, ২০২১ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নাতনি এবং ব্রিটিশ পার্লামেন্টের সদস্য টিউলিপ/রেজওয়ানা সিদ্দিক যুক্তরাজ্যের প্রধান বিরোধী দল লেবার পার্টির নতুন ছায়া মন্ত্রিসভার Shadow Economic Secretary to the Treasury হিসেবে দায়িত্ব পান। ৯ অক্টোবর ২০১৬ Shadow Minister for Children & Early Years-এর দায়িত্ব পালনের পর তিনি এই দায়িত্ব পেলেন। যুক্তরাজ্যে সংসদীয় গণতন্ত্রের রীতি অনুযায়ী, সরকারকে জবাবদিহি করার জন্য সরকারের বিপরীতে বিরোধীদলও একটি মন্ত্রিসভা গঠন করে। এটিকে বলা হয় ছায়া মন্ত্রিসভা (Shadow Cabinet)।

 

বাংলাদেশ এখন উন্নয়নশীল দেশ

স্বাধীনতার পর তলাবিহীন ঝুড়ি হিসেবে চিহ্নিত একটি রাষ্ট্র ৫০ বছরের মধ্যে সেই অপবাদ ঘুচিয়ে এখন বিশ্বের সামনে উন্নয়নের রোল মডেল। ২৪ নভেম্বর ২০২১ জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদ (UNGA) সকল শর্ত পূরণ করা বাংলাদেশের স্বল্পোন্নত দেশের তালিকা থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণের সুপারিশ অনুমোদন করে। ফলে নতুন এক মাইলফলকের দ্বারপ্রান্তে দেশ। তবে এজন্য বাংলাদেশকে অপেক্ষা করতে হবে ২৪ নভেম্বর ২০১৬ পর্যন্ত।

 LDC-তে বাংলাদেশ

১৯৭৩ সাল থেকে বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হওয়ার জন্য দর-কষাকষি শুরু করে। সেই সময়ে স্বল্পোন্নত দেশের যে সংজ্ঞা ছিল তাতে ১ কোটির বেশি জনসংখ্যার দেশ অন্তর্ভুক্ত হবে না। পরবর্তীতে এটা দুই কোটি করা হয়। কিন্তু বাংলাদেশ সাড়ে ৭ কোটি মানুষ নিয়ে স্বাধীন হয়। ফলে এত বড় জনসংখ্যার দেশকে নেওয়ার ক্ষেত্রে অনেকেই আপত্তি ছিল। বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ অধ্যাপক নুরুল ইসলাম খুব জোরালো ভাবে বাংলাদেশের হয়ে দর-কষাকষিতে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেন। তার একান্ত প্রচেষ্টায় ১৯৭৫ সালে বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশের তালিকায় যুক্ত হয়।

 

বাংলাদেশের উত্তরণ

১৯৭৫ সালের এপ্রিল থেকে স্বল্পোন্নত দেশের কাতারে থাকা বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণে সব শর্ত পূরণ করে ২০১৮ সালে। এরপর ১২-১৬ মার্চ ২০১৮ জাতিসংঘের উন্নয়ন নীতি কমিটির ত্রিবার্ষিক পর্যালোচনা সভায় আনুষ্ঠানিকভাবে মানদণ্ড পূরণের স্বীকৃতি পায়। জাতিসংঘের তিনটি শর্তই পূরণ করে উন্নয়নশীল দেশের যোগ্যতা অর্জন যেন এক বিরল ঘটনা। এরপর ২২-২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ CDP’র ত্রি-বার্ষিক পর্যালোচনায় বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশের তালিকা থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণের চূড়ান্ত সুপারিশ লাভ করে। বাংলাদেশের ২০২৪ সালে উন্নয়নশীল দেশে পদার্পণ করার কথা ছিল। কিন্তু করোনার প্রভাব। মোকাবিলা করে প্রস্তুতি নিতে বাংলাদেশ ১৫ জানুয়ারি ২০২১ বাড়তি দুই বছর সময় চেয়ে আবেদন করে। তাই বাংলাদেশ দুই বছরসহ মোট পাঁচ বছরের প্রস্তুতিকালীন সময় পায়। সর্বশেষ ২৪ নভেম্বর, ২০২১ জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদ (UNGA)’র ৭৬তম বৈঠকে ৪০তম প্লেনারি সভা বাংলাদেশের উত্তরণের সুপারিশ অনুমোদন করে।

 

LDC থেকে উত্তরণ ঘটানো দেশ

দেশ

অন্তর্ভুক্তিউত্তরণ

বতসোয়ানা

১৯৭১

১৯ ডিসেম্বর, ১৯৯৪

কেপভার্দে

১৯৭৭

২০ ডিসেম্বর, ২০০৭

মালদ্বীপ

১৯৭১

১ জানুয়ারি, ২০১১

সামোয়া

১৯৭১

১ জানুয়ারি, ২০১৪

নিরক্ষীয় গিনি

১৯৮২

৪ জুন, ২০১৭

ভানুয়াতু

১৯৮৫

৪ ডিসেম্বর, ২০২০

 

উত্তরণের পথে যত দেশ

দেশ

অন্তর্ভুক্তি

ঘটবে

ভুটান

১৯৭১

১৩ ডিসেম্বর, ২০২৩

অ্যাঙ্গোলা

১৯৯৪

১২ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪

সাওটোমে অ্যান্ড প্রিন্সিপে

১৯৮২

১৩ ডিসেম্বর, ২০২৪

সলোমন দ্বীপপুঞ্জ

১৯৯১

১৩ ডিসেম্বর, ২০২৪

বাংলাদেশ

১৯৭৫

২৪ নভেম্বর, ২০২৬

লাওস

১৯৭১

২৪ নভেম্বর, ২০১৬

নেপাল

১৯৭১

২৪ নভেম্বর, ২০১৬

 

LDC-তে অন্তর্ভুক্তি উত্তরণের সূচক (২০২১ সালের মানদণ্ড)

 

অন্তর্ভুক্তি

উত্তরণ

বাংলাদেশের অবস্থান

GNI

,০১৮ডলার বা এর কম

,২২২লার বা এর বেশি

,৮২৭ ডলার

HAI

৬০ বা এর কম

৬৬ বা এর বেশি

৭৫.

EVI

৩৬ বা এর বেশি

৩২ বা এর কম

২৭.

 

এছাড়া একটি দেশ যেকোনো দুটি সূচক অর্জন করতে পারলে, সেটি LDC থেকে উত্তরণ ঘটনোর যোগ্যতা অর্জন করে। তবে ইচ্ছে করলে কোনো দেশ শুধু মাথাপিছু মোট জাতীয় আয়ের ভিত্তিতেও LDC থেকে বেরিয়ে আসার আবেদন করতে পারে। সেক্ষেত্রে ঐ দেশটির মাথাপিছু জাতীয় আয় মূল্যায়নের বছরে নির্ধারিত প্রয়োজনীয় আয়ের দ্বিগুণ, অর্থাৎ ২,৪৪৪ মার্কিন ডলার বা তার চেয়ে বেশি হতে হবে। GNI হলো বিগত তিন বছরের গড় মাথাপিছু আয়। CDP ৩টি সূচকের ভিত্তিতে LDC’র তালিকা তৈরি করে মাথাপিছু মোট জাতীয় আয় (GNI), মানব সম্পদ সূচক (HAI) ও আর্থিক ভঙ্গুরতা সূচক (EVI)।

  

নতুন ভিত্তি বছরে মৌলিক অর্থসূচকে বাংলাদেশ

২৩ নভেম্বর, ২০২১ বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো (BBS) ২০১৫-১৬ সালকে ভিত্তিবছর ধরে ২০২০-২১ অর্থ বছরের জিডিপির সাময়িক খাতওয়ারি প্রবৃদ্ধির হার ও অবদান এবং মাথাপিছু আয় প্রকাশ করে। কৃষি, শিল্প ও সেবা- এ তিনটিকে প্রধান খাত ধরে গণনা করা হয় জিডিপি।
● জনসংখ্যা ১৬৯.৩ মিলিয়ন
● জিডিপি ৩,৪৮,৪০,৩৩১ মিলিয়ন টাকা
● মাথাপিছু জিডিপি ২,০৫,৭৭৮ টাকা বা ২,৪২৬ মা.ড.
● মাথাপিছু জাতীয় আয় ২,১৬,৫৮৯ টাকা বা ২,৫৫৪ মা.ড.
● জিডিপির প্রবৃদ্ধির হার ৫.৪৩%। 

GDP’তে খাতসমূহের অবদান ও প্রবৃদ্ধির হার

খাতসমূহ

অবদানের হার (%)

প্রবৃদ্ধির হার (%)

২০১৯-২০

২০২০-২১ (সাময়িক)

২০১৯-২০

২০২০-২১ (সাময়িক)

কৃষি

১২.৫২

১২.১৫

৩.৪২

২.৩৭

শিল্প

৩৪.৯৪

৩৫.১১

৩.৬১

৫.৯৯

সেবা

৫২.৫৪

৫২.৭৪

৩.৯৩

৫.৮৬

সার্বিক GDP (উৎপাদন মূল্য)

১০০.০০

১০০.০০

৩.৪৫

৫.৪৩

Leave a Reply