আন্তর্জাতিক বিষয়াবলি

কালানুক্রমিক ঘটনাবলি

২.১২.২১

♦ বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার (WTO) ৬৭টি দেশ পরিষেবা বাণিজ্যের সুবিধার্থে ঐতিহাসিক চুক্তিতে পৌঁছে।

৮.১২.২১

♦ জার্মানিতে অ্যাঞ্জেলা মার্কেল যুগের অবসান। ভারতের দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্য তামিলনাড়ুতে হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়ে প্রতিরক্ষা প্রধানসহ আরও ১৩ জন নিহত।

০৯.১২.২১

♦ মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের উদ্যোগে দুই দিনব্যাপী গণতন্ত্র সম্মেলন শুরু। তাইওয়ানের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করে চীনের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক পুনঃস্থাপন করে নিকারাগুয়া।

১১.১২.২১

♦ বিশ্বের প্রথম কাগজবিহীন প্রশাসন চালু করে সংযুক্ত আরব আমিরাত।

১৩.১২.২১

♦ প্রতিরক্ষা খাতে অস্ট্রেলিয়া ও দক্ষিণ কোরিয়ার মধ্যে ঐতিহাসিক চুক্তি স্বাক্ষরিত। হংকংয়ের মিডিয়া মুঘল জিমি লাইকে ১৩ মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

১৬.১২.২১

♦ মার্কিন কংগ্রেসের উচ্চকক্ষ সিনেটে চীনের শিনজিয়াং থেকে আমদানি নিয়ন্ত্রণে Uyghur Forced Labor Prevention Act নামের বিল পাস।

♦ আর্জেন্টিনায় রোহিঙ্গা গণহত্যার সাক্ষ্য গ্রহণ শুরু।

১৭.১২.২১

♦ ভারতে তৈরি করোনাভাইরাসের টিকা Covovax কে জরুরি অনুমোদন দেয় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।  

২১.১২.২১

♦ তুরস্ক-ইরান-পাকিস্তানের মধ্যে পণ্যবাহী ট্রেন চলাচল শুরু।

১৯.১২.২১

♦ আফগানিস্তান পরিস্থিতি নিয়ে ইসলামী সহযোগিতা সংস্থার (OIC) পররাষ্ট্রমন্ত্রীরদের ১৭তম বিশেষ সম্মেলন পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদে অনুষ্ঠিত।

২৫.১২.২১

♦ ইতিহাস সৃষ্টি করে বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী টেলিস্কোপ জেমস ওয়েব সফলভাবে মহাকাশে যাত্রা শুরু করে।

আলোচিত বিশ্ব

পারসন অব দ্য ইয়ার

মার্কিন সাময়িকী টাইম ম্যাগাজিনের ২০২১ সালের বর্ষসেরা ব্যক্তিত্ব নির্বাচিত হন ইলন মাস্ক। ১৩ ডিসেম্বর ২০২১ সাময়িকীটি বিখ্যাত গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান টেসলার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (CEO) ইলনের নাম ঘোষণা করে। পারসন অব দ্য ইয়ার ঘোষণার পাশাপাশি টাইম ম্যাগাজিনে এ বছর পপ গায়িকা অলিভিয়া রদ্রিগোকে ‘এন্টারটেইনার অব দ্য ইয়ার’ মার্কিন জিমন্যাস্ট সিমন বাইলসকে ‘অ্যাথলেট অব দ্য ইয়ার এবং টিকা তৈরির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বিজ্ঞানীদের ‘হিরোজ অব দ্য ইয়ার’ ঘোষণা করে।

চাল আমদানি

যুক্তরাষ্ট্রের কৃষি বিভাগ (USDA)-এর ২০২১ সালের ডিসেম্বরে ‘খাদ্যশস্য: বিশ্ববাজার ও বাণিজ্য’ শীর্ষক প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০২০-২১ অর্থবছরে শীর্ষ চাল আমদানিকারক দেশ (লাখ টন)- ১. চীন, ৪৫। ২. বাংলাদেশ ২৬.৫ লাখ।। ৩. ফিলিপাইন, ২৬। ৪. নাইজেরিয়া, ১৯ ও ৫. সৌদি আরব, ১৩। রপ্তানিতে শীর্ষ: ভারত; এরপরে রয়েছে ভিয়েতনাম ও থাইল্যান্ড।

বিশ্বের ক্ষমতাধর নারী

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক প্রভাবশালী বিজনেস ম্যাগাজিন Forbes ২০০৪ সাল থেকে বিশ্বের ক্ষমতাধর ১০০ নারীর তালিকা প্রকাশ করে আসছে। ৭ ডিসেম্বর ২০২১ Forbes প্রকাশ করে বিশ্বের ক্ষমতাধর ১০০ নারী তালিকার ১৮তম প্রতিবেদন।

শীর্ষ ক্ষমতাধর নারী:

নাম

পরিচিতি

১. ম্যাকেঞ্জি স্কট

আমাজনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জেফ বেজোসের সাবেক স্ত্রী।

২. কমলা হ্যারিস

মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট।

৩. ক্রিস্টিন লাগার্দ

ইউরোপীয় কেন্দ্রীয় ব্যাংকের প্রেসিডেন্ট।

৪. ম্যারি বারা

জেনারেল মটরসের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা।

৫. মেলিন্ডা গেটস

বিল এন্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশনের কো-চেয়ার।

  • বিশ্বের প্রভাবশালী ১০০ নারীর তালিকায় বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অবস্থান ৪৩তম।
  • টানা ১০ বারের মতো শীর্ষ স্থানে থাকা জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঞ্জেলা মার্কেল এবার তালিকায় স্থান পাননি।

 

LDC

LDCs’র পূর্ণরূপ Least Developed Countries, যার বাংলা স্বল্পোন্নত দেশসমূহ। স্বল্পোন্নত দেশের ধারণাটি আসে ষাটের দশকে। জাতিসংঘ অর্থনৈতিক ও সামাজিক প্রেক্ষাপট বিবেচনা করে উন্নয়নশীল ও উন্নত এই দুই শ্রেণিতে বিশ্বের সব দেশকে ভাগ করে। তবে উন্নয়নশীল দেশের মধ্যে আবার যেসব দেশ তুলনামূলক দুর্বল, তাদের নিয়ে স্বল্পোন্নত দেশের (LDC) তালিকা হয়। ১৮ নভেম্বর, ১৯৭১ জাতিসংঘের এক প্রস্তাবের মাধ্যমে LDC গ্রুপ গড়ে ওঠে। ১৯৭১ সালে প্রথম ২৫টি স্বল্পোন্নত দেশের তালিকা তৈরি করা হয়। উল্লেখ্য, স্বল্পোন্নত দেশগুলোও কিন্তু উন্নয়নশীল দেশ। মূলত, এসব দেশ যাতে নিজেদের অর্থনীতিকে শক্তিশালী করতে পারে, সেজন্য উন্নত দেশের পক্ষ থেকে উন্নয়নশীল দেশগুলো কে কিছু বাজার সুবিধা দেওয়া হয়। এর মধ্যে অন্যতম শুল্কমুক্ত পণ্য রপ্তানির সুবিধা। সর্বশেষ ২০১২ সালে LDC-তে যুক্ত হয় দক্ষিণ সুদান। বর্তমানে বিশ্বে ৪৬টি স্বল্পোন্নত দেশ রয়েছে।

ভারতরাশিয়া প্রতিরক্ষা চুক্তি

রাশিয়ার কালশনিকভ কোম্পানির তৈরি একে-৪৭ পৃথিবী বিখ্যাত। একে-২০৩ তারই সহোদর। আরও উন্নত সংস্করণ। দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি ইনসাস রাইফেলের বদলে ভারতীয় সেনাবাহিনীর পদাতিক ব্যাটালিয়নগুলোতে রাইফেলগুলো ব্যবহৃত হয়।

রাশিয়ার তৈরি একে-২০৩ রাইফেল পেতে যাচ্ছে ভারতীয় সশস্ত্র বাহিনী। ৬ ডিসেম্বর, ২০২১ রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট সংক্ষিপ্ত সফরে ভারত গেলে চুক্তি করে দুই দেশ। পাশাপাশি রাশিয়া ও ভারতের মধ্যে সামরিক সহযোগিতার মেয়াদ ২০৩১ সাল পর্যন্ত বাড়ানোসহ ২৮টি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়। ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং ও রুশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী জেনারেল সের্গেই সোইগু চুক্তিগুলোয় স্বাক্ষর করেন। প্রায় ৫,০০০ কোটি রুপির চুক্তি অনুযায়ী, ভারতেই দুই দেশ যৌথভাবে একে-২০৩ রাইফেল উৎপাদন করবে। চুক্তি অনুযায়ী, আগামী ১০ বছরে দেশটির উত্তর প্রদেশের আমেথির ‘করওয়ার অর্ডিন্যান্স ফ্যাক্টরিতে রুশ প্রযুক্তি ব্যবহার করে ছয় লাখের বেশি কালাশনিকভ সিরিজের সর্বাধুনিক সংস্করণ একে-২০৩ রাইফেল তৈরি হবে।

প্রথম বিটকয়েন সিটি এল সালভাদর

ল্যাটিন আমেরিকার দেশ এল সালভাদর বিশ্বের প্রথম ‘বিটকয়েন সিটি’ নির্মাণের পরিকল্পনা করে। ‘বিটকয়েন সিটি’র প্রাথমিক তহবিল আসবে বিটকয়েন বন্ডের মাধ্যমে। ২১ নভেম্বর, ২০২১, প্রেসিডেন্ট নাইব বুকেলে এ ঘোষণা দেন। উল্লেখ্য, ৫ জুন, ২০২১ তিনি বিটকয়েন বিষয়ক আন্তর্জাতিক সম্মেলনে তার দেশে ডিজিটাল মুদ্রাটিকে বৈধতা দেওয়া হবে বলে ঘোষণা দেন। ৮ জুন, ২০২১ দেশটির কংগ্রেস ক্রিপ্টোকারেন্সিকে বৈধ মুদ্রা হিসেবে গ্রহণের বিল অনুমোদন করে। এর ফলে, এল সালভাদর বিশ্বের প্রথম দেশ হিসেবে ডিজিটাল মুদ্রা বিটকয়েনকে রাষ্ট্রীয়ভাবে বিনিময় মুদ্রা হিসেবে গ্রহণ করে। কংগ্রেসের সমর্থন পাওয়ায় বিলটি কার্যকর হয় ৭ সেপ্টেম্বর ২০২১। কার্যকরের পরই দেশটিতে বিটকয়েনে লেনদেন শুরু হয়।

নতুন দুই ঘাঁটি তৈরি করবে যুক্তরাষ্ট্র

চীনের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় গুয়াম ও অস্ট্রেলিয়ায় ঘাটি তৈরি করবে যুক্তরাষ্ট্র। বৈশ্বিক নিরাপত্তা পরিস্থিতি পর্যালোচনা করার পর যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা বিভাগ এ পদক্ষেপ নেয়। যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হিসেবে জো বাইডেন দায়িত্ব নেওয়ার পরপরই ২০২১ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে বৈশ্বিক পরিস্থিতি পর্যালোচনা করতে প্রতিরক্ষামন্ত্রী লয়েড অস্টিনকে নির্দেশ দেন। মার্চ মাস থেকেই পরিস্থিতি পর্যালোচনা শুরু করেন অস্টিন।

গণতন্ত্র সম্মেলন

৯-১০ ডিসেম্বর ২০২১ মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের উদ্যোগে ভার্চুয়ালি সামিট ফর ডেমোক্রেসি বা গণতন্ত্র সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। বিশ্বব্যাপী গণতন্ত্র চর্চার গুরুত্ব তুলে ধরতে তিনি আন্তর্জাতিক গণতন্ত্র সম্মেলন আহ্বান করেন। এতে ১১০টি দেশকে আমন্ত্রণ জানানো হয়। বাইডেন প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর পররাষ্ট্রনীতিবিষয়ক প্রথম ভাষণে গণতন্ত্র সম্মেলন আয়োজনের অঙ্গীকার করেন। মূলত বিশ্বব্যাপী কর্তৃত্ববাদী শাসনের বিস্তার ঘটার পরিপ্রেক্ষিতে এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

 

মন্ত্রিসভায় নারী পুরুষ সমান

জার্মানির নতুন মন্ত্রিসভার সদস্য ১৬। মার্কেলের মন্ত্রিসভায় ১০ জন নারীর বিপরীতে পুরুষ মন্ত্রী ছিলেন মাত্র ৬ জুন। তবে এবার নারী-পুরুষের সংখ্যা সমান। প্রথমবারের মতো লিঙ্গ-সমতাভিত্তিক মন্ত্রিসভা পেল জার্মানি। ইউরোপের বৃহত্তম গণতন্ত্রের দেশটিতে এর আগে কখনো এমনটা দেখা যায়নি। পৃথিবীর গণতন্ত্রের ইতিহাসেও এ ঘটনা বিরল। মন্ত্রিসভায় SPD থেকে সাত, গ্রিন পার্টি থেকে পাঁচ ও FDT থেকে চার রাজনীতিক স্থান পান। ভাইস চ্যান্সেলর হিসেবে দায়িত্ব পান গ্রিন পার্টির নেতা রবার্ট হাবেক। স্বরাষ্ট্র ও পররাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করবেন যথাক্রমে SPD’র ন্যান্সি ফেসার ও গ্রিন পার্টির আনালিনা বেয়ারবক। জার্মানির ইতিহাসে প্রথম নারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী আনালিনা বেয়ারবক।

 নতুন চ্যান্সেলর ওলাফ শলঞ্জ

৮ ডিসেম্বর ২০২১ জার্মানির চ্যান্সেলর হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন সোশ্যাল ডেমোক্র্যাটিক পার্টির (SPD) নেতা ওলাফ শলৎজ। তিনি দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ পরবর্তী জার্মানির নবম চ্যান্সেলর হিসেবে শপথ গ্রহণ করেন। আর SPD থেকে চতুর্থ কোনো নেতা দেশটির চ্যান্সেলর হন। এর আগে দলটি থেকে উইলি ব্র্যান্ট, হেলমুট স্মিত ও শ্রোয়েডার চ্যান্সেলর হন। ১৪ জুন, ১৯৫৮ জার্মানির উত্তর পশ্চিমাঞ্চলীয় রাজ্য লোয়ার স্যাক্সোনিতে ওলাফ শলঞ্জ জন্মগ্রহণ করেন। তার বেড়ে ওঠা জার্মানির অন্যতম ধনী শহর হামবুর্গে। পরবর্তী সময়ে তিনি হামবুর্গের মেয়র নির্বাচিত হন। ১৯৭৫ সালে তিনি হাইস্কুলে পড়ার সময় SPD-তে যোগ দেন। ১৯৯৮ সালে জার্মান সংসদে নির্বাচিত হন। ১৪ মার্চ, ২০১৮ থেকে অ্যাঞ্জেলা মার্কেলের মন্ত্রিসভায় অর্থমন্ত্রী ও ডেপুটি চ্যান্সেলর হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

ব্রিটিশ দাসত্ব থেকে মুক্ত

১৬২৫ সালে চার হাজার মাইল দূরের ক্যারিবীয় দ্বীপটিতে ভেড়ে ইংরেজদের প্রথম জাহাজটি। ১৬৫৭ সালে দেশটিতে ব্রিটিশ উপনিবেশ গড়ে তোলা হয়। এরপর শুরু হয় চার শতকের ঔপনিবেশিকতা আর দাসত্বের ইতিহাস। আফ্রিকা থেকে কৃষ্ণাঙ্গ দাস এনে আখ চাষ করানোই ছিল ব্রিটিশ ব্যবসায়ীদের লক্ষ্য। ২০০ বছরের মাথায় ছয় লাখ আফ্রিকান দাসের ঠাঁই হয় বার্বাডোসে। ১৮৩৬ সালে সেই দাসপ্রথা অবলুপ্ত হয়। কিন্তু স্বাধীনতা আসেনি। ব্রিটিশ সাম্রাজ্যের অংশ ছিল দেশটি। রক্তক্ষয়ী সংগ্রামের পর ৩০ নভেম্বর ১৯৬৬ স্বাধীনতা পায় দ্বীপটি। তৈরি হয় প্রেসিডেন্ট, প্রধানমন্ত্রী ও গভর্নর জেনারেলের মতো পদ। এরপরও রাষ্ট্রপ্রধানের পদে ছিল ব্রিটেনের রানি এলিজাবেথের নাম। সরাসরি না হলেও কাগজ-কলমে দেশটির সব কিছুই নিয়ন্ত্রণ করে ব্রিটেনের রাজপরিবার ও তাদের প্রতিনিধি। ১৫ ডিসেম্বর ১৯৯৮ সাংবিধানিক রিভিউ কমিশন বার্বাডোসের প্রজাতন্ত্র মর্যাদা অর্জনের জন্য একটি সুপারিশ করে। কিন্তু বাস্তবায়ন হয়নি। এরপর  ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ ক্যারিবিয়ান দ্বীপরাষ্ট্র বার্বাডোসের রাষ্ট্রপ্রধান হিসেবে ব্রিটিশ রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথকে সরিয়ে প্রজাতান্ত্রিক দেশ হওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করে। পার্লামেন্টের নতুন অধিবেশনের আগে প্রধানমন্ত্রীর এ লিখিত বক্তব্য পড়ে শোনান গভর্নর জেনারেল সান্দ্রা ম্যাসন। তার বক্তব্যে দেশটির প্রথম প্রধানমন্ত্রী এরল ব্যারোর একটি সতর্কবার্তাও উল্লেখ করা হয়। যাতে তিনি বলেন, ‘উপনিবেশিক বৃত্তের মধ্যে দেশকে ঘুরপাক খাওয়া উচিত হবে না’। ২০২০ সালে প্রজাতান্ত্রিক রাষ্ট্রে পরিণত হওয়ার লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয় ব্রিটেনের কাছ থেকে স্বাধীন হওয়ার ৫৫তম বর্ষপূর্তির দিন অর্থাৎ ৩০ নভেম্বর, ২০২১। এরপর প্রজাতান্ত্রিক রাষ্ট্রে পরিণত হওয়ার লক্ষ্যে দেশটির পার্লামেন্ট ৬ অক্টোবর ২০২১ সংবিধান সংশোধন করে। ক্যারিবিয়ান অঞ্চলের প্রথম সাবেক ব্রিটিশ উপনিবেশ হিসেবে বার্বাডোসই যে প্রথম রাজতন্ত্র থেকে প্রজাতন্ত্র হলো, তা নয়। স্বাধীনতার চার বছরেরও কম সময়ের মধ্যে ২৩ ফেব্রুয়ারি ১৯৭০ গায়ানা এই মর্যাদা আদায় করে এবং ১ আগস্ট ১৯৭৬ ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোবাগো একই পথ অনুসরণ করে।

রাষ্ট্র সরকার প্রধান উভয়েই নারী

বর্তমান বিশ্বে বার্বাডোসই একমাত্র দেশ, যে দেশের রাষ্ট্র ও সরকার প্রধান উভয়েই নারী। প্রেসিডেন্ট সান্দ্রা ম্যাসন ছাড়াও ২৫ মে, ২০১৮ থেকে দেশটির প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী হিসেবে ক্ষমতায় রয়েছেন মিয়া আমর মটলি।

প্রথম প্রেসিডেন্ট

৩০ নভেম্বর ২০২১ বার্বাডোসের স্বাধীনতার ৫৫তম বার্ষিকীতে দেশটির প্রথম প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্বগ্রহণ করেন সান্দ্রা ম্যাসন। তিনি দেশটির প্রথম নারী প্রেসিডেন্টও। ২০ অক্টোবর ২০২১ সান্দ্রা ম্যাসন দেশটির পার্লামেন্টের যৌথ অধিবেশনে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন। এর আগে তিনি ৮ জানুয়ারি ২০১৮ থেকে বার্বাডোসের ৮ম গভর্নর-জেনারেল হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন।

ব্রিটিশ রাজতন্ত্র কাহিনি

বর্তমানে ১৫ দেশের রাষ্ট্রপ্রধান: বার্বাডোস বেরিয়ে যাওয়ার পর ৩০ নভেম্বর, ২০২১ থেকে ব্রিটিশ রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ যুক্তরাজ্যসহ ১৫টি দেশের রাষ্ট্রপ্রধান। বার্বাডোসের আগে ১২ মার্চ, ১৯৯২ রাষ্ট্রপ্রধানের জায়গা থেকে রানি এলিজাবেথের নাম বাতিল করে ভারত মহাসাগরের ক্ষুদ্র দ্বীপ দেশ মরিশাস। ব্রিটিশ রানি যুক্তরাজ্য ব্যতিত যে ১৪টি দেশের রাষ্ট্রপ্রধান, সেগুলো হলো-

দেশ

যখন থেকে

দেশ

যখন থেকে

কানাডা

১ জুলাই, ১৮৬৭

টুভ্যালু

১ অক্টোবর, ১৯৭৮

অস্ট্রেলিয়া

১ জানুয়ারি, ১৯০১

সেন্ট লুসিয়া

২২ ফেব্রুয়ারি, ১৯৭৯

নিউজিল্যান্ড

২৬ সেপ্টেম্বর, ১৯০৭

সেন্ট ভিনসেন্ট অ্যান্ড গ্রানাডাইন্স

২৭ অক্টোবর, ১৯৭৯

জ্যামাইকা

৬ আগস্ট, ১৯৬২

বাহামাস

১০ জুলাই, ১৯৭৩

বেলিজ

২১ সেপ্টেম্বর, ১৯৮১

গ্রানাডা

৭ ফেব্রুয়ারি, ১৯৭৪

অ্যান্টিগুয়া অ্যান্ড বারবুডা

১ নভেম্বর, ১৯৮১

পাপুয়া নিউগিনি

১৬ সেপ্টেম্বর, ১৯৭৫

সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস

১৯ সেপ্টেম্বর, ১৯৮৩

সলোমন দ্বীপপুঞ্জ

৭ জুলাই, ১৯৭৮

যেসব দেশের রানি ছিলেন: আয়ারল্যান্ড, ভারত, পাকিস্তান, ঘানা, দক্ষিণ আফ্রিকা, নাইজেরিয়া, উগান্ডা, কেনিয়া, মালাবি, গায়ানা, জিম্বাবুয়ে, গাম্বিয়া, সিয়েরা লিওন, শ্রীলংকা, মাল্টা, ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোবাগো, ফিজি, মরিশাস ও বার্বাডোস।

ব্যালন ডিআর-২০২১

২৯ নভেম্বর ২০২১ ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসের থিয়েটার দ্য শ্যালেতে অনুষ্ঠিত হয় ব্যালন ডি’অরের জমকালো অনুষ্ঠান। ফরাসি সাময়িকী ফ্রান্স ফুটবল প্রবর্তিত ব্যালন ডি’অরের ৬৫তম আসরের মোট ৬টি ক্যাটাগরিতে পুরস্কার দেওয়া হয়।

বর্ষসেরা ফুটবলার (ব্যালন ডিঅর)

পুরুষ: লিওনেল মেসি (বার্সা/পিএসজি/আর্জেন্টিনা)

নারী: অ্যালেক্সিয়া পুতেয়াস (বার্সেলোনা/স্পেন)

বর্ষসেরা গোলরক্ষক (ইয়াসিন ট্রফি),

 জিয়ান লুইজি দোন্নারুম্মা (পিএসজি/ইতালি),

বর্ষসেরা অনূর্ধ্ব-২১ খেলোয়াড় (কোপা ট্রফি)

পেদ্রি গোনজালেজ লোপেজ (বার্সেলোনা/স্পেন)।

সেরা স্ট্রাইকার: রবার্ট লেভান্ডভোস্কি (বায়ার্ন/পোল্যান্ড)

সেরা ক্লাব: চেলসি (ইংল্যান্ড)

মেসির লাকি সেভেন

২০২১ সালে রেকর্ড সপ্তমবারের মতো বিশ্ব ফুটবলের সবচেয়ে মর্যাদাকর পুরস্কার ব্যালন ডি’অর লাভ করেন ফুটবলের জাদুকর লিওনেল মেসি। এর আগে ২০০৯, ২০১০, ২০১১, ২০১২, ২০১৫ ও ২০১৯ সালে ব্যালন ডি’অর লাভ করেন তিনি।

 

Leave a Reply