আন্তর্জাতিক বিষয়াবলি

কালানুক্রমিক ঘটনাবলি

০১ অক্টোবর, ২০২২

♦ “আইনের উৎস একটি এবং তা হচ্ছে সর্বভৌমের আদেশ” – উক্তিটি কার? জন অস্টিন।

♦ ১ অক্টোবর আন্তর্জাতিক প্রবীন দিবস কবে পালিত হয়? ১ অক্টোবর।

♦ কতটি দেশ চীনের সংঙ্গে বেল্ট অ্যান্ড রোড সহযোগিতার নথিতে স্বাক্ষর করেছে? ১৪৯টি।

♦ গণপ্রজাতন্ত্রী চীনের কততম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী আজ? ৭৩তম।

০২ অক্টোবর, ২০২২

♦ টেকনাফ স্থল বন্দরের বিপরীতে মিয়ানমারের স্থল বন্দরের নাম কী? মংডু স্থল বন্দর।

♦ আন্তর্জাতিক পরমানু শক্তি সংস্থার (IAEA) সদর দপ্তর কোথায় অবস্থিত? ভিয়েনা, অস্ট্রিয়া।

♦ SDG তে কয়টি সূচক (Indicators) রয়েছে? ২৪১ টি।

♦ ইরান থেকে তেল ক্রয়ের জন্য কোন ভারতীয় কোম্পানীকে মার্কিন বিধিনিষেধ দেওয়া হয়েছে? তিবালজি প্রাইভেট কো. লিমিটেড।

♦ জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্য দেশ কতটি? ৫টি।

০৩ অক্টোবর, ২০২২

♦ A2i এর পূর্ণ নাম কি? Aspire to Innovate.

♦ ‘সি-ইউ-কি’ গ্রন্থের রচয়িতা কে? হিউয়েন সাং।

০৪ অক্টোবর, ২০২২

♦ চিকিৎসা বিজ্ঞানে নোবেল পেয়েছেন কে? সোয়ান্তে প্যাবো।

♦ য়েতের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থার নাম কি? কুনা।

♦ কত সাল থেকে অলিম্পিকে মহিলা প্রতিযোগিদের সুযোগ দেওয়া হয়? ১৯০০।

♦ লুজান চুক্তির মধ্য দিয়ে কোন সাম্রাজ্য বিলুপ্ত হয়? তুরস্কের অটোমান সাম্রাজ্য।

♦ Asian Clearing Union (ACU) এর সদর দপ্তর কোথায়? তেহরান, ইরান।

♦ সিয়েরা লিওন কত সালে বাংলাকে অন্যতম অফিসিয়াল ভাষা হিসেবে স্বীকৃতি দেয়? ২০০২ সালে।

০৫ অক্টোবর, ২০২২

♦ ২০২২ সালে পদার্থ বিজ্ঞানে নোবেল পেয়েছেন কারা? অ্যালেইন অ্যাসপেক্ট, জন এফ ক্লসার ও অ্যান্টন জেলিঞ্জার।

♦ রিয়ার কোন অঞ্চলে রাশিয়ার নৌঘাঁটি অবস্থিত? লাটাকিয়ার।

♦ Google কত সালে প্রতিষ্ঠিত হয়? ১৯৯৮।

♦ Middle East News Agency (MENA) কোন দেশের সরকারি  সংবাদ সংস্থা? মিশর।

♦ কমনওয়েলথভুক্ত দেশ কয়টি? ৫৬ টি।

০৬ অক্টোবর, ২০২২

♦ ২০২২ সালে রসায়ন বিজ্ঞানে নোবেল পেয়েছেন কারা? ক্যারোলিন আর বার্তোজ্জি, মর্টেন মেলডাল, কে ব্যারি শার্পলেস।

♦ প্রায় কতটি দ্বীপ নিয়ে মালদ্বীপ রাষ্ট্র গঠিত ? ১২০০।

♦ বিশ্বের সবচেয়ে দামি যুদ্ধ জাহাজের নাম কী এবং এটি কোন দেশের? ইউএসএস জেরাল্ড ফোর্ড, যুক্তরাষ্ট্র।

০৭ অক্টোবর, ২০২২

♦ ২০২২ সালে সাহিত্যে নোবেল পেয়েছেন কে? আনি এর্নো।

♦ (QUAD) সর্বশেষ শীর্ষ সম্মেলন কবে অনুষ্ঠিত হয়েছে? ৩ মার্চ, ২০২২।

♦ ২০২২ সালের জি-২০ শীর্ষ সম্মেলনের আয়োজক দেশ কোনটি? ইন্দোনেশিয়া।

০৮ অক্টোবর, ২০২২

♦ তেল রপ্তানিকারী দেশগুলোর সংগঠন কোনটি? OPEC।

♦ আরব-ইসরায়েল তৃতীয় যুদ্ধ কতদিন স্থায়ী ছিল? ৬ দিন।

♦ ইউক্রেনের কোন প্রদেশে লিম্যান শহর অবস্থিত? দোনেৎস্ক।

♦ উইঘুর মুসলিম জনগোষ্ঠি চীনের কোন প্রদেশে বসবাস করে? জিনজিয়াং।

০৯ অক্টোবর, ২০২২

♦ রাশিয়া-ক্রিমিয়ার মধ্যবর্তী সেতুর নাম কী? কার্চ ব্রিজ।

♦ IMF এর Resilience and Sustainability Trust (RST) প্রতিষ্ঠিত হয় কবে? ১ মে, ২০২২ সালে।  

১০ অক্টোবর, ২০২২

♦ মেলিতোপোল শহরটি কোন দেশে অবস্থিত?  ইউক্রেন। 

♦ ১৬৫৪ সালে কোন চুক্তির মাধ্যমে ইউক্রেন সর্বপ্রথম রুশ সাম্রাজ্যের অন্তর্ভুক্ত হয়? পেরিয়া স্লাভা। 

♦ টেসলার প্রধান নির্বাহী কে?  ইলন মাস্ক। 

♦ ওপেক (OPEC) কত সালে প্রতিষ্ঠিত হয়? ১৯৬০ সালে।

♦ ‘রিং অব ফায়ার’ অঞ্চলে অবস্থিত দেশের নাম কী? জাপান।   

১১ অক্টোবর, ২০২২

♦ আন্তর্জাতিক কন্যা শিশু দিবস কবে পালিত হয়? ১১ অক্টোবর।

♦ ২০২২ সালে অর্থনীতিতে নোবেল পেয়েছেন কারা? বেন এস. বার্নাকে, ডগলাস ডব্লিউ ডায়মন্ড এবং ফিলিপ এইচ ডিগাভিগ।

♦ ক্রিমিয়ার সংঙ্গে রাশিয়ার মূল ভূখণ্ডকে যুক্ত করা একমাত্র সেতুর নাম কী? কার্চ সেতু।

♦ রাশিয়ার গ্যাজপ্রমব্যাংক সম্প্রতি কোন দেশে কার্যক্রম বন্ধ করে? সুইজারল্যান্ড।

১২ অক্টোবর, ২০২২

♦ চ্যাথাম দ্বীপ’ কোন দেশে অবস্থিত? নিউজিল্যান্ড।

♦ মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রি ড. মাহাথির মোহাম্মদ কত বছর ক্ষমতায় ছিলেন? ২৪ বছর।

♦ একজন প্রাপ্তবয়স্ক সুস্থ স্বাভাবিক মানুষের রক্তচাপ কত? ১২০/৮০।

১৩ অক্টোবর, ২০২২

♦ APEC এর ২৯তম সম্মেলন কবে অনুষ্ঠিত হবে? ১৮-১৯ নভেম্বর, ২০২২ সালে।

♦ ন্যাটোর একটি দেশের উপর হামলা মানে সব দেশের উপর হামলা – কত নং অনুচ্ছেদে এই কথা বলা আছে?  ৫ নং।

♦ কোন দেশের সেনাবাহিনী পিপলস লিবারেশন আর্মি নামে পরিচিত? চীন।

১৫ অক্টোবর, ২০২২

♦ যুক্তরাজ্যের নতুন অর্থমন্ত্রীর নাম কী? জেরেমি হান্ট।

♦ আন্তর্জাতিক গ্রামীণ নারী দিবস পালিত হয় কবে? ১৫ অক্টোবর।

♦ কনফারেন্স অন ইন্টারঅ্যাকশন অ্যান্ড কনফিডেন্স বিল্ডিং মেজার ইন এশিয়া (সিআইসিএ) কত সালে প্রতিষ্ঠিত হয়? ৪ সেপ্টেম্বর, ১৯৯৯।

♦ সম্প্রতি ওপেক প্লাস তাদের তেল উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা দৈনিক কী পরিমাণ হ্রাস করার সিদ্ধান্ত জানায়? ২০ লাখ ব্যারেল।

১৬ অক্টোবর, ২০২২

♦ শি জিনপিং এর রাজনৈতিক দলের নাম কী? চীনা কমিউনিস্ট পার্টি।

♦ বিশ্ব খাদ্য দিবস পালিত হয় কবে? ১৬ অক্টোবর।

♦ আইসিসি ম্যানস টি-২০ ওয়ার্ল্ডকাপে কতটি দল অংশগ্রহণ করতে যাচ্ছে? ১৬টি।

♦ আফরিন শহর কোন দেশে অবস্থিত? সিরিয়া।

♦ সম্প্রতি কোন প্রতিষ্ঠান কলেরা ভ্যাকসিন উৎপাদন বন্ধ করার ঘোষণা দেয়? সানোফি।

♦ অষ্টম আন্তর্জাতিক টি-২০ ওয়ার্ল্ডকাপ কোন দেশে অনুষ্ঠিত হচ্ছে? অস্ট্রেলিয়ায়।

♦ ইউক্রেনে ইলন মাস্কের দেওয়া ফ্রি ইন্টারনেট সেবার নাম কী? স্টারলিংক।

১৭ অক্টোবর, ২০২২

♦ সম্প্রতি ইবোলার প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে কোন দেশের দুটি জেলায় লকডাউন দেওয়া হয়? উগান্ডা।

♦ কনজাংটিভাইটিস বা চোখ ওঠা রোগ প্রথম কত সালে এবং কোন দেশে শনাক্ত করা হয়? ১৯৬৯ সালে ঘানায়।

♦ মোসাদ কোন দেশের গোয়েন্দা সংস্থা? ইসরায়েল।

১৯ অক্টোবর, ২০২২

♦ চিনি উৎপাদনে শীর্ষ দেশ কোনটি? ভারত।

♦ ‘দনিপ্রো ও জিতোমিয়ার’ শহর দুইটা কোন দেশের? ইউক্রেন।

♦ সংবিধানের কত নং অনুচ্ছেদ বলে ইনডেমনিটি অধ্যাদেশের মাধ্যমে দায়মুক্তি দেয়া হয়েছিল? ৪৬ নং অনুচ্ছেদ।

২০ অক্টোবর, ২০২২

♦ পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের মূল যন্ত্রের নাম কী? রি-অ্যাক্টর প্রেশার ভেসেল।

♦ সম্প্রতি কোন দেশের সাবেক পাইলটদের ভাড়া করে চীনে নিয়োগ দেওয়ার অভিযোগ ওঠে? যুক্তরাজ্য।

♦ সম্প্রতি কোন দেশ তাইওয়ানের সাথে যৌথভাবে অস্ত্র উৎপাদন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে? যুক্তরাষ্ট্র।

♦ কুখ্যাত ‘ইনসেইন কারাগার’ মিয়ানমারের কোন রাজ্যে অবস্থিত? ইয়াঙ্গুন।

২১ অক্টোবর, ২০২২

♦ ক্তরাজ্যের ইতিহাসে সবচেয়ে কম সময়ের প্রধানমন্ত্রী কে? লিজ ট্রাস (মাত্র ৪৫ দিন)।

♦ ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনের নাম কি? ১০ নং ডাউনিং স্ট্রিট।

♦ রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় পরমাণু সংস্থা রোসাটমের মহাপরিচালক কে?  আলেক্সি লিখাচেভ।

♦ চাঁদ পৃথিবীর সামনে এসে সূর্যকে ঢেকে রাখলে কী হয়? সূর্যগ্রহণ।

♦ বাংলাদেশের বর্তমান রিজার্ভের পরিমাণ কত? ৩৫.৯৮ বিলিয়ন ডলার।

♦ সোভিয়েত ইউনিয়নের সর্বশেষ নেতা কে? মিখাইল গর্ভাচেভ।

২২ অক্টোবর, ২০২২

♦ পাকিস্তান নির্বাচন কমিশন কত বছরের জন্য ইমরান খানকে সরকারি পদে থাকার অযোগ্য বলে ঘোষণা করে? ৫ বছর।

♦ কোন দেশের ড্রোন কোম্পানির ওপর নিষেধাজ্ঞায় সম্মত হয়েছে ইইউ? ইরান।

♦ ব্লু নাইল রাজ্যটি কোন দেশে অবস্থিত? সুদান।

♦ কোন খাদ্য দেহের প্রয়োজনীয় পুষ্টি সরবরাহ করে? সুষম খাদ্য।

♦ ২০২২ সালে যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যবর্তী নির্বাচন কোন মাসে হবে? নভেম্বর।

২৩ অক্টোবর, ২০২২

♦ ইতালির প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক দলের নাম কি? ব্রাদার্স অব ইতালি।

♦ IMF এর প্রধান কার্যালয় কোথায় অবস্থিত? ওয়াশিংটন ডিসি।

♦ যুক্তরাষ্ট্রের বর্তমান ফার্স্ট লেডির নাম কি? জিল বাইডেন।

২৪ অক্টোবর, ২০২২

♦ আরব লীগের ৩১তম সম্মেলন কোথায় অনুষ্ঠিত হবে? আলজেরিয়া।

♦ ২০২৩ সালের বাজেটে ‘সমুদ্রের তলদেশ’ প্রতিরক্ষার জন্য ৩.১ মিলিয়ন ইউরো বরাদ্ধ দেয় কোন দেশ? ফ্রান্স।

♦ গ্যাসশিল্পে সহায়তা করতে রাশিয়ায় কতটি টারবাইন সরবরাহ করার ঘোষণা দেয় ইরান? ৪০টি।

♦ রুশ বিপ্লব সংগঠিত হয়েছিল কত সালে? ১৯১৭ সালে।

২৫ অক্টোবর, ২০২২

♦ ব্রিটেনের নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পেতে যাচ্ছেন কে? ঋষি সুনাক (ভারতীয় বংশোদ্ভূত)।

♦ কাচিন ইন্ডিপেনডেন্স আর্মি কোন দেশের স্বাধীনতাকামী সংগঠন? মিয়ানমার।

♦ উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়ার সীমান্তবর্তী গ্রামের নাম কী? পানমুনজাম।

♦ পৃথিবীর সর্বদক্ষিণের শহর কোনটি? পুন্টা আরেনাস, চিলি।

২৬ অক্টোবর, ২০২২

♦ জাপানের নতুন অর্থমন্ত্রীর নাম কী? শিগেইউকি গোতো।

♦ কালাবাহী শহর কোন দেশে অবস্থিত? ইন্দোনেশিয়া।

♦ ঋষি সুনাক যুক্তরাজ্যের কততম প্রধানমন্ত্রী? ৫৭তম।

২৭ অক্টোবর, ২০২২

♦ রাশিয়া সারা বিশ্বে জ্বালানি সরবরাহ করে মোট জ্বালানির কত শতাংশ? প্রায় ১০ শতাংশ।

♦ ইইউ স্বরাষ্ট্র কমিশনারের নাম কী? ইলভা জোহানসন।

♦ সম্প্রতি কোন সংগঠন উত্তর-পশ্চিম ইউরোপে ‘স্টেডফাস্ট নুন’ নামে নিজস্ব পারমাণবিক মহড়া চালু করে? ন্যাটো।

♦ কত সালে উত্তর কোরিয়া প্রথম পারমাণবিক অস্ত্রের পরীক্ষা চালায়? ২০০৬ সালে।

২৮ অক্টোবর, ২০২২

♦ আগামী মাসে জি-২০ শীর্ষ সম্মেলন কোথায় অনুষ্ঠিত হবে? ইন্দোনেশিয়ার বালিতে।

♦ ACU থেকে বেরিয়ে গেছে কোন দেশ? শ্রীলঙ্কা।

♦ অতিরিক্ত চর্বি জমে যকৃতের প্রদাহকে কি বলে? স্টেটো-হেপাটাইটিস।

♦ এডিস মশা কখন বেশি কামড়ায়? সকাল-সন্ধ্যা।

২৯ অক্টোবর,২০২২

♦ ‘টুইটার’-এর বর্তমান মালিক কে? ইলন মাস্ক।

♦ যুক্তরাষ্ট্রের গর্ভপাত সংক্রান্ত মামলা- রো বনাম ওয়েড।

♦ ২৭তম জাতিসংঘ জলবায়ু সম্মেলন কোথায় অনুষ্ঠিত হবে? শার্ম আল-শেখ, মিশর।

৩০ অক্টোবর,২০২২

♦ মাগিন্দানাও প্রদেশটি কোন দেশের? ফিলিপাইন।

♦ পরিবেশের জন্য হুমকি এমন দুটি বৃক্ষ- ইউক্যালিপটাস ও অ্যাকাশিয়া।

৩১ অক্টোবর,২০২২

♦ বিশ্বের সবচেয়ে বড় কয়লা খনির নাম কী এবং কোথায় অবস্থিত? নর্থ অ্যান্টিলোপ রোশেল, যুক্তরাষ্ট্র।

♦ লেবাননের প্রধানমন্ত্রীর নাম কী? মিশেন আউন।

♦ মিয়ানমারের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর নাম কী? বর্ডার গার্ড পুলিশ (বিজিপি)।

আলোচিত বিশ্ব

সংস্থার প্রধান

• প্রেসিডেন্ট, আন্তর্জাতিক কৃষি উন্নয়ন তহবিল (IFAD): আলভারো লারিও (স্পেন); দায়িত্ব গ্রহণ ১ অক্টোবর, ২০২২।

• চেয়ারম্যান, BIMSTEC: রনিল বিক্রমাসিংহে (শ্রীলংকা); দায়িত্ব গ্রহণ ২১ জুলাই ২০২২-বর্তমান।

• মহাসচিব, ডি-৮: ইসিয়াকা আবদুলকাদির ইমাম (নাইজেরিয়া); দায়িত্ব গ্রহণ ১ জানুয়ারি, ২০২২।

ITU’প্রথম নারী মহাসচিব

 ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২ আন্তর্জাতিক টেলিযোগাযোগ ইউনিয়নের (ITU) প্রথম নারী মহাসচিব নির্বাচিত হন যুক্তরাষ্ট্রের ডোরিন বোগডান-মার্টিন। ১ জানুয়ারি, ২০২৩ তিনি চীনের হাওলিন ঝাও’র স্থলাভিষিক্ত হবেন। ১ জানুয়ারি, ২০১৫ থেকে দুই দফায় মহাসচিবের দায়িত্ব পালন করেন হাওলিন ঝাও। নতুন মহাসচিব নির্বাচিত হওয়ার আগে ITU’র ‘টেলিকমিউনিকেশন ডেভেলপমেন্ট ব্যুরো’র পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন বোগডান-মার্টিন।

ICRC’র প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট

 ০১ অক্টোবর, ২০২২ আন্তর্জাতিক রেড ক্রস কমিটির (ICRC) প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন সুইজারল্যান্ডের মির্জানা স্পোলজারিক এগার। ২৫ নভেম্বর, ২০২১ তিনি চার বছরের জন্য ICRC’র প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন।

ILO’র মহাপরিচালক

 আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থার (ILO) বর্তমান মহাপরিচালক টোগোর গিলবার্ট এফ. হাউংবো। ২৫ মার্চ, ২০২২ তিনি পাঁচ বছর মেয়াদে ILO’র ১১তম মহাপরিচালক নির্বাচিত হন। ১ অক্টোবর, ২০২২ দায়িত্ব গ্রহণ করেন। শ্রমিকদের উন্নতি, তাদের সুযোগ-সুবিধা ও অধিকার নিশ্চিত করার লক্ষ্যে ভার্সাই চুক্তি অনুযায়ী ১৯১৯ সালে ILO প্রতিষ্ঠিত হয়। ১৯৪৬ সালে জাতিসংঘের সহায়ক সংস্থা হিসেবে স্বীকৃতি লাভ করে। ILO জাতিসংঘের সবচেয়ে পুরোনো ও প্রথম বিশেষায়িত সংস্থা। এটি জাতিসংঘের একমাত্র ত্রিপক্ষীয় সংস্থা, যা সরকার, নিয়োগকর্তা বা মালিক-শ্রমিকদের নিয়ে কাজ করে।

সম্মেলন-বৈঠক

ADB বার্ষিক সভা

Asian Development Bank (ADB)

আয়োজন: ৫৫তম।

সময়কাল: ২৬-৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২।

স্থান: ম্যানিলা, ফিলিপাইন।

বিশ্বব্যাংক ও আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (IMF) বার্ষিক সম্মেলন

 সময়কাল: ১০-১৬ অক্টোবর ২০২২

স্থান: ওয়াশিংটন, যুক্তরাষ্ট্র।

CICA সম্মেলন

Conference on Interaction and Confidence-Building Measures in Asia

আয়োজন: ষষ্ঠ।

সময়কাল: ১২-১৩ অক্টোবর ২০২২

স্থান: আস্তানা, কাজাখস্তান।

ইন্টারপোলের সাধারণ সভা

আয়োজন: ৯০তম।

সময়কাল: ১৮-২১ অক্টোবর ২০২২

স্থান: নয়াদিল্লি, ভারত।

পরবর্তী সম্মেলন

আরব লীগ

আয়োজন: ৩১তম।

সময়কাল: ১-২ নভেম্বর ২০২২।

স্থান: আলজিয়ার্স, আলজেরিয়া।

ASEAN

Association of Southeast Asian Nations

আয়োজন: ৪০ ও ৪১তম

সময়কাল: ৮-১৩ নভেম্বর ২০২২

স্থান: কম্বোডিয়া।

G20

আয়োজন: ১৭তম।

সময়কাল: ১৫-১৬ নভেম্বর ২০২২।

স্থান: বালি, ইন্দোনেশিয়া।

APEC

Asia-Pacific Economic Cooperation

আয়োজন: ২৯তম।

সময়কাল ১৮-১৯ নভেম্বর ২০২২।

স্থান: ব্যাংকক, থাইল্যান্ড।

পদক-পুরস্কার

জাতীয় মানবকল্যাণ পদক

৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ মন্ত্রিসভার বৈঠকে ‘মাদার অব হিউম্যানিটি সমাজকল্যাণ পদক’ এর নাম পরিবর্তন করে ‘জাতীয় মানবকল্যাণ পদক’ করা হয়। ২০১৮ সালে ‘মাদার অব হিউম্যানিটি পুরস্কার’ হিসেবে মন্ত্রিসভায় অনুমোদন করা হয়। ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ ‘জাতীয় মানবকল্যাণ পদক’ নীতিমালা, ২০২২ গেজেট আকারে প্রকাশ করা হয়।

পদক সংখ্যা: প্রতি বছর প্রতিটি ক্ষেত্রে ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানকে ১টি করে সর্বোচ্চ ৫টি ‘জাতীয় মানবকল্যাণ পদক’ প্রদান করা হবে।

পুরস্কার: ১৮ ক্যারেট মানের ২৫ গ্রাম স্বর্ণ দ্বারা নির্মিত পদক, একটি রেপ্লিকা, সম্মাননা সনদ, ব্যক্তি পর্যায়ে দুই লাখ এবং দপ্তর, সংস্থা বা প্রতিষ্ঠান পর্যায়ে দুই লাখ টাকা।

শাখারভ পুরস্কার

১৯৮৮ সাল থেকে মানবাধিকার এবং মৌলিক স্বাধীনতা রক্ষাকারী ব্যক্তি ও সংস্থাগুলোকে শাখারভ পুরস্কার দেওয়া হয়। সোভিয়েতবিরোধী নেতা আন্দ্রেই শাখারভের নামে চিন্তার স্বাধীনতাকে স্বীকৃতি দেওয়ার জন্য এ পুরস্কারটির নামকরণ করা হয়। ইউক্রেনের জনগণকে ২০২২ সালের শাখারভ পুরস্কারে ভূষিত করা হয়। পুরস্কারের ৫০,০০০ ইউরো ইউক্রেনের সুধীসমাজের প্রতিনিধিদের দেওয়া হবে।

বুকার পুরস্কার

যুক্তরাজ্য থেকে প্রকাশিত মৌলিক ইংরেজি ভাষার উপন্যাসের জন্য প্রতিবছর বুকার পুরস্কার দেওয়া হয়। ১৯৬৯ সাল থেকে এ পুরস্কার দেওয়া হয়। এ পুরস্কারের মূল্যমান ৫০,০০০ পাউন্ড। সংক্ষিপ্ত তালিকায় থাকা মনোনীত বাকি পাঁচ লেখককেও ২,৫০০ পাউন্ড করে দেওয়া হয়। ২০২২ সালের বুকার পুরস্কার লাভ করেন শ্রীলংকার লেখক শিহান করুণাতিলাকা। The Seven Moons of Maali Almeida নামক অতিপ্রাকৃত ও বিদ্রূপাত্মক উপন্যাসের জন্য তাকে এ পুরস্কার দেওয়া হয়। ৪৭ বছর বয়সি করুণাতিলাকা মর্যাদাপূর্ণ বুকার পুরস্কারজয়ী দ্বিতীয় শ্রীলংকান। তার এ উপন্যাসের প্রেক্ষাপট ১৯৯০ এর দশকে শ্রীলংকার গৃহযুদ্ধ। মূলত শ্রীলংকায় সাম্প্রদায়িক সংঘর্ষের মধ্যে মৃত একজন আলোকচিত্রীকে নিয়ে তিনি এই বইটি রচনা করেন। তার প্রথম উপন্যাস Chinaman: The Legend of Pradeep Mathew ২০১০ সালে প্রকাশ হয়। এই বইটি ২০১২ সালে কমনওয়েলথ পুরস্কারসহ আরও কয়েকটি পুরস্কার লাভ করে। ২০২৩ সালে তার পরবর্তী বই The Birth Lottery and Other Surprises প্রকাশ হবে। এটি ছোটগল্পের বই। ১৯৯২ সালে The English Patient বইয়ের জন্য প্রথম শ্রীলংকান হিসেবে বুকার লাভ করেন মাইকেল ওন্ডাতজে।

রিপোর্ট-সমীক্ষা

ডিজিটাল কোয়ালিটি অব লাইফ ইনডেক্স

প্রকাশ: অক্টোবর ২০২২

প্রকাশক: নেদারল্যান্ডসভিত্তিক। ভার্চুয়াল প্রাইভেট নেটওয়ার্ক (VPN) পরিষেবা কোম্পানি  সার্ফশার্ক।

প্রতিবেদনের শিরোনাম: 2022 Digital Quality of Life Index

অন্তর্ভুক্ত দেশ: ১১৭টি।

প্রতিবেদন অনুযায়ী-

• শীর্ষ দেশ: ইসরায়েল

• সর্বনিম্ন দেশ: গণতান্ত্রিক কঙ্গো প্রজাতন্ত্র।

• সার্কভুক্ত দেশের অবস্থান: ৫৯. ভারত, ৭৬. বাংলাদেশ, ৮৯. শ্রীলংকা, ৯৪. নেপাল ও ৯৬. পাকিস্তান।

ই-গভর্নমেন্ট ডেভেলপমেন্ট ইনডেক্স

প্রকাশ: ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২

প্রকাশক: United Nations Department of Economic and Social Affairs (UN DESA)

সূচকের শিরোনাম: E-Government Survey 2022

অন্তর্ভুক্ত দেশ: ১৯৩টি।

সূচক অনুযায়ী-

• শীর্ষ দেশ: ডেনমার্ক

• সর্বনিম্ন দেশ: দক্ষিণ সুদান।

• সার্কভুক্ত দেশের অবস্থান: ৯৫. শ্রীলংকা, ১০৪. মালদ্বীপ, ১০৫. ভারত, ১১১. বাংলাদেশ, ১২৫. নেপাল, ১১৫. ভুটান, ১৫০. পাকিস্তান ও ১৮৪. আফগানিস্তান।

বৈশ্বিক উদ্ভাবনী সূচক

প্রকাশ: ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২।

প্রকাশক: World Intellectual Property Organization (WIPO)

সূচকের শিরোনাম: Global Innovation Index 2022।

অন্তর্ভুক্ত দেশ: ১৩২টি।

সূচক অনুযায়ী-

• শীর্ষ দেশ: সুইজারল্যান্ড

• সর্বনিম্ন দেশ: গিনি।

• সার্কভুক্ত দেশের অবস্থান: ৪০. ভারত, ৮৫. শ্রীলংকা, ৮৭. পাকিস্তান, ১০২. বাংলাদেশ ও ১১১. নেপাল।

বৈশ্বিক ক্ষুধা সূচক

প্রকাশ: ১২ অক্টোবর ২০২২

প্রকাশক: Concern Worldwide and Welthungerhille

অন্তর্ভুক্ত দেশ: ১২১টি।

সূচকের শিরোনাম: Global Hunger Index 2022

সূচক অনুযায়ী-

• ক্ষুধার মাত্রা কম: ১৭টি দেশে- বেলারুশ, বসনিয়া অ্যান্ড হার্জেগোভিনা, চিলি, চীন, ক্রোয়েশিয়া, এস্তোনিয়া, হাঙ্গেরি, কুয়েত, লাটভিয়া, লিথুয়ানিয়া, মন্টিনিগ্রো, রোমানিয়া, উত্তর মেসিডোনিয়া, সার্বিয়া, স্লোভাকিয়া, তুরস্ক ও উরুগুয়ে।

• ক্ষুধার মাত্রা সবচেয়ে বেশি: ইয়েমেন।

• সার্কভুক্ত দেশের অবস্থান: ৬৪. শ্রীলংকা, ৮১. নেপাল, ৮৪. বাংলাদেশ, ৯৯. পাকিস্তান, ১০৭. ভারত ও ১০৯. আফগানিস্তান।

ডাক উন্নয়ন সূচক

প্রকাশ: ৭ অক্টোবর, ২০২২

প্রকাশক: Universal Postal Union (UPL) ।

সূচকের: 2022 Postal Development Report

অন্তর্ভুক্ত দেশ: ১৭২টি।

সূচক অনুযায়ী-

• ডাক সেবার মান বিচারে ১৭২টি দেশকে ১০টি ধাপে ভাগ করা হয়।

• শীর্ষ দেশ: সুইজারল্যান্ড।

• বাংলাদেশের অবস্থান দ্বিতীয় ধাপে। এই ধাপে বাংলাদেশের সঙ্গী আফগানিস্তানসহ ৪৮টি দেশ।

বৈশ্বিক ভোক্তা বাজার

প্রকাশ: ১৯ অক্টোবর, ২০২২

প্রকাশক: এইচএসবিসি গ্লোবাল রিসার্চ। প্রতিবেদন অনুযায়ী-

ভোক্তা বাজারে শীর্ষ ১০ দেশ

ক্রম

২০২১

২০৩০

ক্রম

২০২১

২০৩০

১.

চীন

চীন

৬.

রাশিয়া

রাশিয়া

২.

ভারত

ভারত

৭.

জাপান

জাপান

৩.

যুক্তরাষ্ট্র

যুক্তরাষ্ট্র

৮.

জার্মানি

মেক্সিকো

৪.

ব্রাজিল

ইন্দোনেশিয়া

৯.

মেক্সিকো

বাংলাদেশ

৫.

ইন্দোনেশিয়া

ব্রাজিল

১০.

তুরস্ক

ভিয়েতনাম

টাইমস হায়ার এডুকেশন র‍্যাংকিং

প্রকাশ: ১২ অক্টোবর, ২০২২

প্রকাশক: যুক্তরাজ্যভিত্তিক শিক্ষা সাময়িকী Times Higher Education (THE)

অন্তর্ভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়: ১০৪টি দেশের ১,৭৯৯টি।

প্রতিবেদনের শিরোনাম: World University Rankings 2023

র‍্যাংকিং অনুযায়ী-

• শীর্ষ বিশ্ববিদ্যালয়: অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়।

• তালিকায় বাংলাদেশের ৫ বিশ্ববিদ্যালয় – ৬০১-৮০০-এর মধ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়

• ১২০১-১৫০০-এর মধ্যে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় এবং খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়।

সম্প্রতিক বিশ্ব

সৌদি যুবরাজ এখন প্রধানমন্ত্রী

২৭ সেপ্টেম্বর. ২০২২ সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানকে দেশটির প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা করা হয়। বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজের নির্দেশে মন্ত্রিসভার রদবদলে তাকে এ দায়িত্ব দেওয়া হয়। বাদশাহ রাষ্ট্রপ্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন । মন্ত্রিসভায় উপস্থিত থাকলে তিনিই সভাপতিত্ব করবেন । যুবরাজকে বিশ্বের সর্বাধিক তেল রপ্তানিকারক দেশটির অঘোষিত শাসকই মনে করা হয় তবে সৌদি আরবে সাধারণত প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নিজের কাছে রাখতেন বাদশাহ। MBS হিসেবেও পরিচিত সৌদি যুবরাজ এত দিন উপ-প্রধানমন্ত্রীর পাশাপাশি প্রতিরক্ষামন্ত্রীর দায়িত্বও পালন করে আসছিলেন। ২১ জুন ২০১৭ তিনি সিংহাসনের উত্তরাধিকারী হন। সৌদি আরবে সামাজিক ও অর্থনৈতিক পরিবর্তনের জন্য প্রকাশিত তার সুদূরপ্রসারী পরিকল্পনা রয়েছে, যা ‘ভিশন ২০৩০’ নামে পরিচিত। নতুন প্রতিরক্ষামন্ত্রী করা হয় তার ছোট ভাই খালিদ বিন সালমানকে। ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ থেকে খালিদ উপপ্রতিরক্ষামন্ত্রীর দায়িত্বে ছিলেন।

ইসরায়েল-লেবানন সমুদ্রসীমা চুক্তি

১১ অক্টোবর ২০২২ গ্যাসসমৃদ্ধ ভূমধ্যসাগরে দীর্ঘদিন ধরে চলমান সামুদ্রিক সীমান্ত বিরোধের অবসান করতে ইসরায়েল এবং লেবানন ঐতিহাসিক সমঝোতায় পৌঁছে। যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যস্থতায় এ সমঝোতা হয় । শীঘ্রই আনুষ্ঠানিক চুক্তি স্বাক্ষরিত হবে। চুক্তিতে অন্তর্ভুক্ত থাকছে সমুদ্রের ৮৬০ বর্গকিলোমিটার (৩৩২ বর্গমাইল) এলাকা। চুক্তির মাধ্যমে এ এলাকা নিয়ে বছরের পর বছর ধরে বিতর্কের অবসান ঘটবে। লেবানন ও ইসরায়েলের মধ্যে বৈরিতা থাকলেও ২০২০ সালের পর থেকে এ দুই দেশ সমুদ্রসীমা চুক্তি নিয়ে কাজ শুরু করে।

আকাশচুম্বী বৃত্তাকার স্থাপনা

বিশ্বের অন্যতম নজরকাড়া স্থাপত্যশৈলীর তালিকায় রয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ের বুর্জ খালিফা। আকাশচুম্বী ভবনটি দেখতে প্রতিদিন হাজারো পর্যটক ভিড় করে। এবার বুর্জ খলিফার চারপাশে বিশালাকারের বৃত্তাকার এক শহর গড়ার পরিকল্পনা চলছে। প্রকৌশল সংস্থা জেডনেরা স্পেস প্রাথমিকভাবে এর একটি কাল্পনিক নকশা তৈরি করেন। এমন ধরনের স্থাপত্যকে ডাউন টাউন সার্কেল বলা হয়। নকশা অনুযায়ী, শহরটি হবে ১,৮০৪ ফুট উচ্চতার এবং বৃত্তাকারে হবে ১.৮ কিলোমিটার। নিচে কেবল পাঁচটি পিলার দিয়ে পুরো বৃত্তাকার ভবন নির্মাণের পরিকল্পনা করা হয়েছে। ভবনের মধ্যে থাকবে অফিস থেকে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, কমার্শিয়াল জায়গা, এমনকি বাসস্থানও।

ইরাকে নতুন প্রেসিডেন্ট ও প্রধানমন্ত্রী

 ১৩ অক্টোবর ২০২২ ইরাকের পার্লামেন্ট কুর্দি রাজনীতিক আবদুল লতিফ রাশিদকে দেশের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত করে। নির্বাচিত হয়েই তিনি শিয়া মোহাম্মদ আল সুদানিকে প্রধানমন্ত্রী মনোনীত করেন। এর মাধ্যমে ১০ অক্টোবর ২০২১ হওয়া জাতীয় নির্বাচনের পর থেকে চলা রাজনৈতিক অচলাবস্থার অবসান হয়। ১৭ অক্টোবর ২০২২ আবদুল লতিফ রাশিদ আনুষ্ঠানিকভাবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। যুক্তরাজ্যে পড়াশোনা করা প্রকৌশলী রাশিদ ২০০৩-২০১০ পর্যন্ত ইরাকের পানিসম্পদ মন্ত্রী ছিলেন। তিনি দ্বিতীয় মেয়াদের জন্য প্রেসিডেন্ট প্রার্থী বারহাম সালিহর বিরুদ্ধে জয় পান। সাম্প্রদায়িক সংঘাত এড়াতে ইরাকে ক্ষমতা ভাগাভাগি পদ্ধতি অনুযায়ী, প্রেসিডেন্ট হন একজন কুর্দি, প্রধানমন্ত্রী শিয়া ও পার্লামেন্টের স্পিকার সুন্নি। ইরাকে পার্লামেন্টের সবচেয়ে বড় জোট কো অর্ডিনেশন ফ্রেমওয়ার্কের মনোনীত প্রধানমন্ত্রী প্রার্থী ■ মোহাম্মদ আল সুদানিকে সরকার গঠনের আমন্ত্রণ জানান। পরবর্তী ৩০ দিনের মধ্যে সুদানিকে মন্ত্রিসভা গঠন করে অনুমোদনের জন্য পার্লামেন্টের কাছে পেশ করতে হবে। কো-অর্ডিনেশন ফ্রেমওয়ার্ক ইরানের মিত্র দলগুলোর একটি জোট।

ইতালির প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী

২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ ইতালির পার্লামেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে জর্জিয়া মেলোনির ‘ব্রাদার্স অব ইতালি পার্টি’র নেতৃত্বাধীন কট্টর ডানপন্থি জোট জয়লাভ করে। ‘ঈশ্বর, দেশ ও পরিবার’—এই শব্দগুচ্ছ সামনে রেখে মেলোনি নির্বাচনী প্রচারণা চালান। ২২ অক্টোবর ২০২২ তিনি ইতালির প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। এর ফলে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর এটি হলো ইতালির প্রথম কট্টর ডানপন্থি সরকার। জর্জিয়া মেলোনির জন্ম ১৫ জানুয়ারি ১৯৭৭। মাত্র ১৫ বছর বয়সে তিনি ইতালির রাজনৈতিক দল মোডিমেন্তো সোশিয়ালে ইতালিয়ানোর (MSI) তরুণদের সংগঠনে যোগ দেন। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর দলটি গড়ে তুলেন ইতালির ফ্যাসিবাদী শাসক বেনিতো মুসোলিনির অনুসারীরা। এই সংগঠনকে তার ‘দ্বিতীয় পরিবার’ হিসেবে অভিহিত করেন মেলোনি। ফ্যাসিবাদী পরিচয় মুছে ফেলার জন্য ১৯৯৫ সালে MSI ন্যাশনাল অ্যালায়েন্স (AN) নাম দেওয়া হয়। AN কে রক্ষণশীল ডানপন্থি জাতীয়তাবাদী দল হিসেবে পরিচিত করা হয়। এর কয়েক বছরের মাথায় মেলোনি AN’র তরুণদের সংগঠনের প্রেসিডেন্ট হন। ২৮ এপ্রিল ২০০৬ তিনি মাত্র ২৯ বছর বয়সে ইতালির পার্লামেন্টে পা রাখেন। একই সময় সিলভিও বার্লুসকোনি মধ্যম ডানপন্থি দল ফোরজা ইতালিয়া গঠন করেন। AN’র সঙ্গে জোট গড়ে ফোরজা ইতালিয়া। পরে এই জোট ইতালিতে ক্ষমতায় আসে। প্রধানমন্ত্রী হন বার্লুসকোনি। ঐ সরকারের অধীনে ৮ মে ২০০৮ ইতালির সর্বকনিষ্ঠ যুববিষয়ক মন্ত্রী হন মেলোনি। ১৭ ডিসেম্বর ২০১২ প্রতিষ্ঠা করেন Brothers of Italy (ইতালিয়ান ভাষায় Fratelli d’Italia)। জাতীয়তাবাদ, রক্ষণশীলতা ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন নিয়ে সংশয়ের আদর্শে গড়ে ওঠে। দলটি। আন্তর্জাতিক আর্থিক বাজার, অভিবাসী ও সমকামীদের অধিকার নিয়ে অসহিষ্ণু দলটি। তার লেখা আত্মজীবনী Io sono Giorgia গ্রন্থে লিখেছেন-মা যদি শেষ মুহূর্তে গর্ভপাতের সিদ্ধান্ত পরিবর্তন না করতেন তাহলে আমার জন্ম হতো না।

বৈশ্বিক খাদ্য সংকট মোকাবিলায় তহবিল

বিশ্বব্যাপী খাদ্য সংকট মোকাবিলায় ক্ষতিগ্রস্ত দেশগুলোকে ঋণ সহায়তা দিতে ৩,০০০ কোটি মার্কিন ডলারের তহবিল গঠন করে বিশ্বব্যাংক ও আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (IMF)। এর মধ্যে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত ও অতি দারিদ্র এমন দেশগুলোকে সুদবিহীন ঋণ দেওয়া হবে ৬৫০ কোটি মার্কিন ডলার। ১০-১৬ অক্টোবর ২০২২ অনুষ্ঠিত IMF ও বিশ্বব্যাংকের বার্ষিক সাধারণ সভায় এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয় । সভায় এই তহবিলের জোগান নিশ্চিত করা হয়। এর বাইরে উন্নয়ন সহযোগী বহুজাতিক সংস্থাগুলো থেকেও তাদের অতিরিক্ত তহবিলের একটি অংশ এ খাতে নিয়ে ঋণের যোগান আরও বাড়ানো হবে। এছাড়া ক্ষতিগ্রস্ত দেশগুলোকে আর্থিক খাতে নগদ অর্থের প্রবাহ বাড়াতে আরও ১৪,১০০ কোটি ডলার ঋণ দেওয়া হবে ।

বিশ্বের দীর্ঘতম নিমজ্জিত টানেল

বিশ্বের অন্যতম দীর্ঘ সমুদ্র সুড়ঙ্গপথ (টানেল) নির্মিত হচ্ছে বাল্টিক সাগরের ১৩১ ফুট নিচ দিয়ে। অবিশ্বাস্য প্রযুক্তি দক্ষতায় নির্মিতব্য এ টানেল পশ্চিম ইউরোপের দুই দেশ জার্মানি ও ডেনমার্ককে যুক্ত করবে। ২০০৮ সালে এ টানেল নির্মাণে জার্মানি ও ডেনমার্কের মধ্যে চুক্তি হয় । জার্মানির ফেহমান ও ডেনমার্কের লোল্যান্ড দ্বীপের মধ্যে ফেহমার্নবেল্ট প্রণালির তলদেশ দিয়ে এটি নির্মিত হচ্ছে। এ কারণে এর নাম ‘ফেহমার্নবেল্ট টানেল’। সব মিলিয়ে ১৮ কিলোমিটার দীর্ঘ হবে এ সমুদ্র সুড়ঙ্গপথ। এক দশকের বেশি সময় ধরে পরিকল্পনার পর ২০২০ সালে শুরু হয় এর নির্মাণকাজ। ২০২৯ সালে টানেলটি উন্মুক্ত করা হবে।

মালয়েশিয়ায় জাতীয় নির্বাচন

১০ অক্টোবর ২০২২ রাজা সুলতান আবদুল্লাহ আহমদ শাহের সম্মতিতে মালয়েশিয়ার সংসদ ভেঙে দেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইসমাইল সাবরি ইয়াকুব। ১৯ নভেম্বর ২০২২ দেশটিতে ১৫তম জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ১৬ জুলাই ২০২৩ স্বয়ংক্রিয়ভাবে বিলুপ্ত হওয়ার আগেই দেশটির পার্লামেন্ট ভেঙে দেওয়ায় আগাম নির্বাচনের পথ প্রশস্ত হলো। দেশটিতে সাধারণ নির্বাচন হওয়ার কথা ছিল ২০২৩ সালের সেপ্টেম্বরে। ১১ অক্টোবর ২০২২ দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী ৯৭ বছর বয়সি মাহাথির মোহাম্মদ আগামী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার ঘোষণা দেন। মাহাথির ১৬ জুলাই ১৯৮১-৩১ অক্টোবর ২০০৩ পর্যন্ত টানা ২২ বছর মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন। ১০ মে ২০১৮ তিনি ৯২ বছর বয়সে আবার দেশটির প্রধানমন্ত্রী হন। কিন্তু অভ্যন্তরীণ কোন্দলের কারণে ১ মার্চ ২০২০ তার সরকারের পতন ঘটে।

রুয়ান্ডা গণহত্যার বিচার শুরু

 জাতিসংঘের ট্রাইব্যুনাল অবশেষে হেগের আন্তর্জাতিক আদালতে রুয়ান্ডা গণহত্যার বিচার শুরু করেছে। তুতসি জাতিগোষ্ঠীকে নির্মূলে নেতৃত্ব দেওয়ার অপরাধে এই মামলার প্রধান অভিযুক্ত ব্যক্তি ফেলিচিয়েন কাবুজা। এই গণহত্যায় প্রায় আট লাখ তুতসি ও উদারপন্থি হুতু জনগোষ্ঠীর মানুষকে প্রাণ দিতে হয়। কাবুজার আইনজীবী তাকে নির্দোষ দাবি করে আবেদন দিলেও ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২০ তা আদালতে খারিজ হয়ে যায়। কাবুজা সর্বশেষ শুনানিতে হাজির হতে অস্বীকার করেন।

স্বল্প আয়ের দেশ শ্রীলংকা

মধ্যম আয়ের দেশের মর্যাদা ছেড়ে স্বল্প আয়ের দেশের পর্যায়ে অবনমনের সিদ্ধান্ত নেয় শ্রীলংকা। ১১ অক্টোবর ২০২২ দেশটির মন্ত্রিসভা বৈঠকে এ সংক্রান্ত একটি প্রস্তাব অনুমোদন করে। আন্তর্জাতিক দাতা সংস্থাগুলোর কাছ থেকে সহজ শর্তে ঋণের জন্য এ পদক্ষেপ নিয়েছে চরম অর্থনৈতিক সংকটে নিপতিত শ্রীলংকা। মন্ত্রিসভার সিদ্ধান্তের পর শ্রীলংকার প্রেসিডেন্ট কার্যালয় থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়, শ্রীলংকা মধ্যম আয়ের দেশই থাকবে। তবে অল্প সময়ের জন্য সরকার Reverse Policy গ্রহণ করেছে। বৈশ্বিক সংস্থাগুলোর দেওয়া তথ্য ও পরামর্শের ভিত্তিতে মন্ত্রিসভা ভবিষ্যতে ঋণ গ্রহণের সুবিধার্থে শ্রীলংকার মান মধ্যম আয়ের দেশ থেকে স্বল্প আয়ের দেশে নামার একটি প্রস্তাব অনুমোদন করে। এরই ধারাবাহিকতায় আন্তর্জাতিক ঋণমান নির্ধারক সংস্থাগুলোও শ্রীলংকার মানের অবনমন ঘটাবে। সবচেয়ে দরিদ্র ও নাজুক অর্থনীতির দেশগুলো বিশ্বব্যাংক থেকে বিশেষ ছাড়ে প্রাধিকারযোগ্য ঋণ পেয়ে থাকে। কিন্তু মধ্যম আয়ের দেশ হিসেবে শ্রেণিভুক্ত হওয়ায় শ্রীলংকা প্রয়োজন থাকা সত্ত্বেও সহজ শর্তে দ্রুত ঋণ নিতে পারছে না বলে জানায় বিশ্বব্যাংকের সহযোগী আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সমিতি (IDA)। শ্রীলংকা ১৯৯৭ সালে বিশ্বব্যাংকের মানদণ্ডে মধ্যম আয়ের দেশের তালিকায় উন্নীত হয়েছিল।

আমেরিকা-এশিয়া মিলে অ্যামেশিয়া!

প্রশান্ত মহাসাগর সংকুচিত হয়ে একটি সুপারকন্টিনেন্ট বা অতি-মহাদেশ তৈরি হতে পারে। অস্ট্রেলিয়ার কার্টিন ইউনিভার্সিটি এবং চীনের পিকিং ইউনিভার্সিটির একদল বিজ্ঞানী পৃথিবীর টেকটোনিক প্লেটের বিবর্তন বিশ্লেষণ করে নতুন এ সুপারকন্টিনেন্টের ধারণা দেন। বিজ্ঞানীদের এই গবেষণার ফল ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ ন্যাশনাল সায়েন্স রিভিউ জার্নালে প্রকাশিত হয়। এই তত্ত্বের নাম ‘কন্টিনেন্টাল ড্রিফট’ । তত্ত্ব অনুযায়ী, বহুকাল আগে সব মহাদেশ পরস্পর যুক্ত ছিল। এদের প্যানজিয়া বা অতি-মহাদেশ বলা হতো । কালের আবর্তে টেকটোনিক প্লেটগুলো দূরে সরে গিয়ে আলাদা আলাদা মহাদেশে বিভক্ত হয় বিজ্ঞানীদের গবেষণা সত্যি হলে ২০-৩০ কোটি বছরের মধ্যে আবারও পৃথিবীর সব ভূ-ভাগ পরস্পরের সঙ্গে জুড়ে গিয়ে পুনরায় প্যানজিয়া গঠিত হতে পারে । তখন আমেরিকা এশিয়ার সঙ্গে যুক্ত হয়ে যাবে মনে করায় গবেষকরা এর নাম রেখেছেন ‘অ্যামেশিয়া’। দুইশ কোটি বছর ধরে পৃথিবীর মহাদেশীয় প্লেটগুলো ৬০ কোটি বছর পর পর একটি সুপারকন্টিনেন্ট গঠন করে আসছে। পৃথিবীর এই গঠনে অস্ট্রেলিয়া সেতু হিসেবে কাজ করবে। অস্ট্রেলিয়া বর্তমানে প্রতি বছর ৭ সেন্টিমিটার করে এশিয়ার দিকে এগোচ্ছে। ধারণা করা হচ্ছে প্রথমত, অস্ট্রেলিয়া এশিয়ার সঙ্গে ধাক্কা খাবে, এরপর আমেরিকা ও এশিয়ার মধ্যে সংযোগ তৈরি করবে।

হামাস-ফাতাহ ঐতিহাসিক চুক্তি

ফিলিস্তিনকে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে সব ভেদাভেদ ও বিরোধ ভুলে দেশটির বিবাদমান দল ও গোষ্ঠীগুলো ঐক্যবদ্ধ হয়েছে। সেই লক্ষ্যে ১৩ অক্টোবর ২০২২ আলজেরিয়ার রাজধানী আলজিয়ার্সে ফিলিস্তিনের জাতীয় মুক্তি আন্দোলন ফাতাহ এবং ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাসসহ ১৪টি রাজনৈতিক দল ও গোষ্ঠী এক সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর করে। চুক্তির আওতায় একটি রূপরেখা প্রণয়ন করা হয়। ‘আলজিয়ার্স ঘোষণা’ নামক চুক্তিতে সংলাপ ও আলোচনার মাধ্যমে ফিলিস্তিনের বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের মধ্যে মতভেদ সমাধান করার ওপর জোর গুরুত্ব দেওয়া হয়। আলজেরিয়ার মধ্যস্থতায় এ চুক্তির মূল লক্ষ্য আগামী এক বছরের মধ্যে একটি নির্বাচন উপহার দেওয়া। গত ১৫ বছরে ফিলিস্তিনে কোনো জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়নি। মাসের পর মাস দু’পক্ষের মধ্যে আলোচনা চালিয়ে আসছিল আলজেরিয়া। চুক্তির মাধ্যমে ফাতাহ মুভমেন্ট এবং হামাসের মধ্যে চলে আসা বহুদিনের দ্বন্দ্বের অবসান হলো। ২০০৭ সালে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে গাজা উপত্যকায় হামাসের বিপুল বিজয় ও ক্ষমতা গ্রহণের পর থেকে ফিলিস্তিনি পক্ষগুলোর বিরোধ স্পষ্ট হয়ে ওঠে। ফিলিস্তিন-ইসরায়েল সংঘাতের সমাধান নিয়ে মতবিরোধের কারণে এর আগে দুইপক্ষের আলোচনা কোনো ফল আনতে ব্যর্থ হয়।

দেশভিত্তিক নিয়মিত আয়োজন

ইরান

বিক্ষোভে উত্তাল

‘যথাযথ নিয়ম’ মেনে হিজাব না পরার অভিযোগে ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ ইরানের রাজধানী তেহরান থেকে ২২ বছর বয়সি মাসা আমিনি নামের এক কুর্দি তরুণীকে গ্রেপ্তার করে ‘নীতি পুলিশ’। আটকের পর পুলিশের হেফাজতে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ মাসার মৃত্যু হয়। ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ তার দাফনের পর বিক্ষোভ শুরু হয়। এরপর বিক্ষোভ সারা দেশে ছড়িয়ে পড়ে। বিক্ষোভ থেকে কয়েক হাজার ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়।

নীতি পুলিশ: ইরানের ‘নীতি পুলিশ’ মূলত ফারসি Gasht -e-Ershad বা Guidance Patrols নামে পরিচিত। তাদের কাজ ইরানের কঠোর পোশাকবিধি অমান্যকারী ব্যক্তিদের আটক করে ব্যবস্থা নেওয়া। ‘নীতি পুলিশ’ ইরানের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সঙ্গে সংযুক্ত। ইরানের শীর্ষ ধর্মীয় কর্তৃপক্ষের ঠিক করা ইসলামি নীতি-নৈতিকতা মানুষ মানছে কি ক না, তা তারা নিশ্চিত করে। ‘নীতি পুলিশের প্রতিটি ইউনিটে একটি করে ভ্যান রয়েছে। এ ভ্যানগাড়িতে ‘নীতি পুলিশের’ নারী ও পুরুষ উভয় সদস্যরা থাকেন। তারা ব্যস্ত জনপরিসরে টহল দেন। যারা ‘নীতি’ লঙ্ঘন করেন, তাদের সতর্ক করে নোটিশ দেয় নীতি পুলিশ। আবার কিছু ক্ষেত্রে নীতি লঙ্ঘনকারী ব্যক্তিকে আটক করে থানায় বা সংশোধনাগারে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে নিয়ে গিয়ে তাদের কীভাবে পোশাক পরতে হবে, কী নৈতিক আচরণ মানতে হবে, সে বিষয়ে শিক্ষা দেওয়া হয় পরবর্তীতে পুরুষ অভিভাবকদের ডেকে তাদের জিম্মায় আটক ব্যক্তিকে ছেড়ে দেওয়া হয়। ‘নীতি পুলিশ’ কিছু ক্ষেত্রে নিয়ম লঙ্ঘনকারী ব্যক্তিদের জরিমানা করে। ইরানের শরিয়া আইন অনুযায়ী, নারীদের মাথা ও চুল ঢেকে রাখা বাধ্যতামূলক। তাদের এমন লম্বা ও ঢিলেঢালা পোশাক পরতে হবে, যাতে শরীরের গঠন বোঝা না যায়।

EU’র নিষেধাজ্ঞা

ইরানে চলমান বিক্ষোভে মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগে ১৭ অক্টোবর ২০২২ ইউরোপীয় ইউনিয়ন (EU) দেশটির ওপর নতুন নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। নতুন এ নিষেধাজ্ঞার আওতায় রয়েছে ইরানের নীতি পুলিশ, দেশটির রেভল্যুশনারি গার্ডের সাইবার বিভাগ, তথ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ জাভেদ আজারি জহরোমি, ইরানের নীতি পুলিশের প্রধান, দেশটির রেভল্যুশনারি গার্ডের আধা সামরিক বাহিনী বাসিজ ও ইরানের পুলিশের একটি অংশ যারা সাদা পোশাকে কাজ করে থাকে।

কামিকাজে ড্রোন

১০ অক্টোবর ২০২২ থেকে ইউক্রেনের রাজধানীসহ অন্তত ১০টি অঞ্চলে রুশ হামলা শুরু হয়। ইউক্রেনের অভিযোগ রুশ ক্ষেপনাস্ত্র হামলাসহ এসব ঘটনায় ব্যবহার হয় ইরানের তৈরি ড্রোন। এগুলোকে মনুষ্যবিহীন আকাশযান (UAV), বা ইরানি শহিদ-১৩৬ অস্ত্র হিসেবে চিহ্নিত করা হয়। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে আত্মঘাতী অভিযান চালানো জাপানি যোদ্ধা পাইলটদের নামানুসারে এগুলোকে কামিকাজে ড্রোনও বলা হয়। কামিকাজে জাপানি শব্দ। যার অর্থ হলো আত্মঘাতী।

যুক্তরাষ্ট্র

চিপ-৪ জোট

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন যুক্তরাষ্ট্র ও বিশ্বের শীর্ষ সেমিকন্ডাক্টর উৎপাদনকারী বৃহৎ ৩টি দেশকে নিয়ে একটি জোট গড়তে উদ্যোগী হন, যার উদ্দেশ্য আমদানি নির্ভরতা কমানো ও চীনের প্রভাব খর্ব করা। ৯ আগস্ট ২০২২ এ সংক্রান্ত CHIPS and Science আইনে স্বাক্ষর করে ২৮০ বিলিয়ন ডলার প্রণোদনার ঘোষণা দেন। পাশাপাশি চিপ উৎপাদক বৃহৎ তিন দেশ তাইওয়ান, দক্ষিণ কোরিয়া ও জাপানকে নিয়ে চিপ-৪ জোটের প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ নেন। চিপ-৪ জোটের লক্ষ্য অত্যাধুনিক সেমিকন্ডাক্টর নকশা ও উৎপাদনে নিজেদের মধ্যে সহযোগিতা বৃদ্ধি করা। পাশাপাশি এ খাতে নিজেদের যৌথ প্রভাববলয় তৈরি করা। এ লক্ষ্যেই ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ তিন দেশকে নিয়ে বৈঠক করে যুক্তরাষ্ট্র।

আটলান্টিকে ভাসমান দুর্গ

৪ অক্টোবর ২০২২ যুক্তরাষ্ট্র বিশ্বের সবচেয়ে দামি যুদ্ধজাহাজ ‘ইউএসএস জেরাল্ড আর ফোর্ড’ আটলান্টিক মহাসাগরে মোতায়েন করে । রুশ-ইউক্রেন যুদ্ধ এবং তাইওয়ান নিয়ে চীনের সঙ্গে দ্বন্দ্বের মধ্যেই যুক্তরাষ্ট্রের পরমাণুচালিত এ বিমানবাহী যুদ্ধজাহাজ মোতায়েনের ঘটনা ‘তাৎপর্যপূর্ণ’। ন্যাটো জোটের নৌবাহিনী ‘ক্যারিয়ার স্ট্রাইক গ্রুপে’ গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করবে এ যুদ্ধজাহাজ। ৩৩৭ মিটার দীর্ঘ এবং এক লাখ টন ওজনের এই যুদ্ধজাহাজে ৭৫টিরও বেশি যুদ্ধবিমান এবং হেলিকপ্টার রাখার ব্যবস্থা রয়েছে। ১১ অক্টোবর ২০১৩ প্রথম জলে ভাসে বিশালাকৃতির এই যুদ্ধজাহাজ। ২২ জুলাই ২০১৭ কমিশনের মাধ্যমে যুদ্ধজাহাজকে নৌবাহিনীর হাতে তুলে দেন তৎকালীন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যবর্তী নির্বাচন

মধ্যবর্তী নির্বাচন কী?

যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যবর্তী নির্বাচন প্রকৃতপক্ষে একটি সাধারণ নির্বাচন। দেশটির প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের দুই বছর পর এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় বলে একে মধ্যবর্তী নির্বাচন বলা হয়। মার্কিন আইনসভা কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদের সকল আসনে এবং উচ্চকক্ষ সিনেটের এক-তৃতীয়াংশ আসনে এই নির্বাচন হয়। এছাড়াও এই সময়ে কিছু অঙ্গরাজ্যের আইনসভার কর্মকর্তা ও স্থানীয় সরকারের প্রতিনিধি নির্বাচনও অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে। তবে সব কিছু ছাপিয়ে এই নির্বাচনে নিম্নকক্ষ বা কংগ্রেস এবং উচ্চকক্ষ সিনেট নির্বাচনের গুরুত্ব বেশি কারণ এই দুটি কক্ষের সঙ্গে সরকারের নীতি ও প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব পালন ওতপ্রোতভাবে জড়িত। এই মধ্যবর্তী নির্বাচনকে অনেকেই প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব মূল্যায়নের একটা গণভোট হিসেবে মনে করেন।

নির্বাচন কেন মঙ্গলবার?

যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে প্রথম ৬৯ বছর নির্বাচনের জন্য কোনো আলাদা দিন নির্দিষ্ট ছিল না। ডিসেম্বর মাসের প্রথম বুধবারের আগের ৩৪ দিনের যেকোনো সময় রাজ্যগুলো ভোটাভুটি করতে পারত। কিন্তু আগাম ফলাফল জেনে যাওয়ার কারণে, যেসব রাজ্যে পরে নির্বাচন হতো সেখানে প্রভাব বিস্তারের সম্ভাবনা দেখা দিত। এর ফলে যে বিশৃঙ্খলা দেখা দিত, তা ঠেকাতে ১৮৪৫ সালে যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেসে একটি বিল পাস হয়, যেখানে নির্ধারণ করে দেওয়া হয় যে, প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে নভেম্বর মাসের প্রথম মঙ্গলবার। কিন্তু নভেম্বর মাসের মঙ্গলবারেই কেন? ইতিহাসবিদ ইভান অ্যান্ড্রুসের তথ্য অনুযায়ী, সেই সময়ে বেশিরভাগ মার্কিন কৃষিকাজ করত এবং নির্বাচন কেন্দ্র থেকে অনেক দূরে বসবাস করত। রবিবার সবাই গির্জায় সময় কাটাতো আর বুধবার ছিল কৃষকদের বাজারের দিন। এ কারণে মঙ্গলবার নির্ধারণ করা হয় যাতে কৃষকরা রবিবারের প্রার্থনার পর সোমবার ভোটের জন্য রওনা দিতে পারেন। আবার মঙ্গলবার ভোট দিয়ে তারা হাট করে ফিরতে পারেন।

ক্যাপিটল হিল

মার্কিন কংগ্রেস ভবন ‘ক্যাপিটল’ যুক্তরাষ্ট্রের রাজধানী ওয়াশিংটন ডিসির ক্যাপিটল হিলে অবস্থিত। ১৭৯০ সালে কংগ্রেসে এটি নির্মাণের আইন পাস হয় এবং ১৭৯১ সালে প্রেসিডেন্ট জর্জ ওয়াশিংটন ক্যাপিটল হিলের জন্য এ জায়গাটির অনুমোদন দেন। ১৮ সেপ্টেম্বর ১৭৯৩ ক্যাপিটল হিলের নির্মাণ কাজ উদ্বোধন করা হয়। এর স্থপতি উইলিয়াম থর্টন। ১৮০০ সালে এ ভবনে যুক্তরাষ্ট্রের পার্লামেন্টের কার্যক্রম শুরু হয়।

যৌথ অধিবেশন

কংগ্রেসের যৌথ অধিবেশন বলতে দ্বি-কক্ষ বিশিষ্ট আইনসভার সকল সদস্যের সম্মিলিত বৈঠককে বোঝায়। নতুন মার্কিন প্রেসিডেন্টের অভিষেকের পর, প্রেসিডেন্টের বার্ষিক স্টেট অব দ্য ইউনিয়ন ভাষণের সময় এবং প্রেসিডেন্টের নির্বাচন হিসাবে ইলেক্টোরাল কলেজের আনুষ্ঠানিক ভোট গণনার জন্য যৌথ অধিবেশন আহ্বান করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে।

• প্রথা অনুযায়ী, শপথ গ্রহণের কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই মার্কিন প্রেসিডেন্ট কংগ্রেসের যৌথ অধিবেশনে বক্তব্য দেন।

• কংগ্রেসে যৌথ অধিবেশনে পদাধিকারবলে সভাপতিত্ব করেন ভাইস প্রেসিডেন্ট।

• যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে জো বাইডেনই প্রথম প্রেসিডেন্ট, যিনি ২৮ এপ্রিল ২০২১ দু’জন নারী নেত্রীকে পেছনে রেখে জাতির সামনে কংগ্রেসে বক্তৃতা করেন। তখন ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস যৌথ অধিবেশনে পদাধিকারবলে সভাপতিত্ব করেন। আর প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি প্রেসিডেন্টকে কংগ্রেসে বক্তৃতার জন্য আমন্ত্রণ জানান।

স্পিকার

যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধি সভার সভাপতিকে স্পিকার বলা হয়। মার্কিন সংবিধান অনুসারে প্রতিনিধি সভার নব-নির্বাচিত সদস্যগণ নিজেদের মধ্যে থেকে একজনকে স্পিকার হিসেবে নির্বাচিত করেন। অধিবেশনে তিনিই সভাপতিত্ব করেন। তিনি দুই বছরের জন্য নির্বাচিত হন। তবে তার দল পুনরায় প্রতিনিধি সভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করতে পারলে তিনি পুনর্নির্বাচিত হতে পারেন।

কংগ্রেস

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় সরকারের আইনসভার নাম কংগ্রেস। কংগ্রেস একটি দ্বি-কক্ষ বিশিষ্ট আইনসভা। আইন প্রণয়ন করাই এর প্রধান কাজ। এছাড়া মার্কিন কংগ্রেস দেশটির নির্বাহী বিভাগ ও বিচার বিভাগের কার্য তদন্ত করাসহ সংবিধান সংশোধনের ক্ষেত্রে তাৎপর্যপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে।

ক্যাটাগরি

নিম্নকক্ষ

উচ্চকক্ষ

ইংরেজি

House of Representatives

Senate

বাংলা

প্রতিনিধি পরিষদ

সিনেট

সদস্য

৪৩৫

১০০

পদবি

কংগ্রেসম্যান

সিনেটর

প্রার্থী হওয়ার বয়স

২৫ বছর

৩০ বছর

প্রার্থীতার জন্য ন্যূনতম বসবাস

৭ বছর

৯ বছর

মেয়াদকাল

২ বছর

৬ বছর

যুক্তরাজ্য

শতবর্ষে BBC

১৮ অক্টোবর ২০২২ যুক্তরাজ্যের সংবাদমাধ্যম ব্রিটিশ ব্রডকাস্টিং কর্পোরেশনের (BBC) যাত্রার ১০০ বছর পূর্ণ হয়। Inform Educate and Entertain- সংবাদমাধ্যমের এই তিন মৌলিক উদ্দেশ্য নিয়ে ১৮ অক্টোবর ১৯২২ যাত্রা শুরু করে BBC। এরপর ক্রমান্বয়ে সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে এটি, বিভিন্ন ভাষায় শুরু করে নিজেদের কার্যক্রম। BBC প্রতিষ্ঠার বেশ কিছুদিন পর ১৪ নভেম্বর ১৯২২ সন্ধ্যায় প্রথম সম্প্রচারে আসে। জন রিথ নামের ৩৩ বছর বয়সি একজন স্কটিশ প্রকৌশলী ১৯২২ সালের শেষ দিকে বিবিসির জেনারেল ম্যানেজার নিযুক্ত হন। ১৯৩৬ সালে BBC’র প্রথম টেলিভিশন অনুষ্ঠান শুরু হয়। দীর্ঘ ইতিহাস পাড়ি দিয়ে BBC এখন বিশ্বের সবচেয়ে বড় সম্প্রচার প্রতিষ্ঠান। BBC’র অনুষ্ঠান প্রচার হয় স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক মিলে ৫৯টি রেডিও স্টেশনে, যুক্তরাজ্যের মোট ১০টি টিভি চ্যানেলে ।

বাংলায় সম্প্রচার বন্ধ: অর্থনৈতিক সংকটের কারণে বন্ধ হয়ে যাচ্ছে BBC বাংলার সম্প্রচার। শুধু বাংলাই নয়, আরও ৯টি ভাষার রেডিও সম্প্রচারও বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয় BBC । এগুলো হলো— আরবি, পার্সিয়ান, চীনা, কিরগিজ, উজবেক, হিন্দি, ইন্দোনেশিয়ান, তামিল ও উর্দু। তবে কোনো ভাষার বিভাগই পুরোপুরি বন্ধ হবে না এবং অনেকগুলোর অনলাইন কার্যক্রম চলবে। অনলাইনে থাকবে— চীনা, গুজরাটি, ইন্দোনেশিয়ান, পিজিন, ইগবো, ইউরুবা ও উর্দু ভাষা বিভাগ। ১১ অক্টোবর ১৯৪১ বাংলায় ১৫ মিনিটের সাপ্তাহিক সম্প্রচার শুরুর মাধ্যমে যাত্রা হয় বিবিসি বাংলার রেডিও কার্যক্রম। পরে ১৯৬৫ সালে পর্যায়ক্রমে সংবাদ সম্প্রচার শুরু হয়।

ব্রিটিশ রাজকাহন

রাজার অভিষেক: ১১ অক্টোবর ২০২২ রাজপ্রাসাদ বাকিংহাম প্যালেস থেকে ব্রিটিশ রাজা তৃতীয় চার্লসের রাজ্যাভিষেক উদযাপনের তারিখ জানানো হয়। ৬ মে ২০২৩ (শনিবার) ওয়েস্টমিনস্টার অ্যাবেতে আনুষ্ঠানিকভাবে রাজাকে মুকুট পরানো হবে। ব্রিটিশ রাজপরিবারের প্রথা অনুযায়ী, রাজা বা রানির অভিষেকের পর তারা চতুর্দশ শতাব্দীর রাজা এডওয়ার্ডের সময়কার সিংহাসনে বসেন। তাঁদের মাথায় সপ্তদশ শতাব্দীর সেন্ট এডওয়ার্ডের মুকুটটি পরানো হয়।

নতুন মুদ্রায় রাজা: ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ যুক্তরাজ্যের রাজকীয় টাকশাল রয়্যাল মিন্ট নতুন রাজা তৃতীয় চার্লসের মুখাবয়ব সংবলিত ৫০ পেন্সের নতুন মুদ্রার ছবি প্রকাশ করে। এটির নকশা করেন ব্রিটিশ ভাস্কর মার্টিন জেনিংস। এ ছাড়া তৃতীয় চার্লসের মাথায় কোনো মুকুট রাখা হয়নি। ছবিটির চারপাশে ল্যাটিন ভাষায় লেখা রয়েছে, ‘রাজা তৃতীয় চার্লস, সৃষ্টিকর্তার আশীর্বাদপুষ্ট, ধর্মবিশ্বাসের রক্ষাকর্তা। ২০২২ সালের ডিসেম্বর থেকে ব্যাংক ও ডাকঘরের মাধ্যমে এ মুদ্রা সাধারণ মানুষের হাতে আসবে।

লিজ ট্রাসের পদত্যাগ

৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব গ্রহণ করেন লিজ ট্রাস। এরপর ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ পার্লামেন্টে সংক্ষিপ্ত বাজেট উপস্থাপন করেন তার সরকারের অর্থমন্ত্রী কোয়াসি কোয়ার্টেং। কিন্তু যেসব অর্থনৈতিক নীতি নেন, তাতে যুক্তরাজ্যের মুদ্রা বাজারে অস্থিরতা দেখা দেয়। অর্থনৈতিক সংকট সামাল দিতে না পেরে ৪৫ দিনের মাথায় ২০ অক্টোবর ২০২২ লিজ ট্রাস পদত্যাগের ঘোষণা দেন। এই পদত্যাগের মধ্য দিয়ে যুক্তরাজ্যের ইতিহাসে ট্রাসই সবচেয়ে কম সময় প্রধানমন্ত্রী পদে থাকার রেকর্ড গড়েন। এর আগে ১১৯ দিন দেশটির প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন জর্জ ক্যানিং; সেটিও প্রায় ২০০ বছর আগে (১২ এপ্রিল-৮ আগস্ট ১৮২৭)।

প্রথম ভারতীয় বংশোদ্ভূত প্রধানমন্ত্রী

২৪ অক্টোবর ২০২২ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় যুক্তরাজ্যের কনজারভেটিভ পার্টির প্রধান নির্বাচিত হন ভারতীয় বংশোদ্ভূত নেতা ঋষি সুনাক। ২৫ অক্টোবর ২০২২ তিনি দেশটির ৫৭তম প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। ৪২ বছর বয়সি ঋষি সুনাকের জন্ম ১২ জুন ১৯৮০ ইংল্যান্ডের সাউদাম্পটনে। তিনি অভিবাসী দম্পতির ছেলে। তার বাবা যশবীর সুনাক কেনিয়ায় এবং মা ঊষা সুনাক জন্মগ্রহণ করেন তানজানিয়ায়। ঋষির দাদা-দাদি ব্রিটিশ ভারতের পাঞ্জাব প্রদেশে জন্মগ্রহণ করেন ও ১৯৬০ এর দশকে যুক্তরাজ্যে যান। ২৪ জুলাই ২০১৯ বরিস জনসন প্রধানমন্ত্রী হলে ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০ অর্থমন্ত্রীর দায়িত্ব পান ঋষি। করোনার বিধিনিষেধ লঙ্ঘনসহ কয়েকটি ঘটনায় সমালোচনার মুখে ৭ জুলাই ২০২২ পদত্যাগ করেন বরিস জনসন। এরপর তার সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী লিজ ট্রাস ও অর্থমন্ত্রী ঋষি সুনাক নতুন প্রধানমন্ত্রী হওয়ার জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। দলীয় নেতা নির্বাচনের চূড়ান্ত ধাপে এসে লিজ ট্রাসের কাছে হেরে যান ঋষি সুনাক।

ভারত

ইসলামি সংগঠন PFI নিষিদ্ধ

২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় দেশটির ইসলামি সংগঠন পপুলার ফ্রন্ট অব ইন্ডিয়াসহ (PFI) আরও আটটি সংগঠনকে নিষিদ্ধ করে। সেগুলো হলো রিহ্যাব ইন্ডিয়া ফাউন্ডেশন (RIF), ক্যাম্পাস ফ্রন্ট অব ইন্ডিয়া (CFI), অল ইন্ডিয়া ইমামস কাউন্সিল (AIIC), ন্যাশনাল কনফেডারেশন অব হিউম্যান রাইট্স অর্গানাইজেশন (NCHRO), ন্যাশনাল উইমেন্স ফ্রন্ট, জুনিয়র ফ্রন্ট, এমপাওয়ার ইন্ডিয়া ফাউন্ডেশন এবং কেরালার রিহ্যাব ফাউন্ডেশন। আগামী পাঁচ বছরের জন্য এই সংগঠনগুলো নিষিদ্ধ থাকবে। ১৯৬৭ সালের বেআইনি কার্যকলাপ নিরোধ আইনের (UAPA) ৩৫ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী, দেশের ৪২টি সংগঠন নিষিদ্ধ। ২২ নভেম্বর ২০০৬ কেরালার কোঝিকোডে এক বৈঠকে PHI গঠনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০০৭ PFI আনুষ্ঠানিকভাবে গঠিত হয়।

৫-জি পরিষেবা

পঞ্চম প্রজন্মের ওয়্যারলেস সিস্টেম সংক্ষেপে ৫-জি হচ্ছে উন্নত প্রযুক্তির ওয়্যারলেস নেটওয়ার্ক। ১ অক্টোবর ২০২২ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ৫-জি পরিষেবা প্রযুক্তির উদ্বোধন করেন। আপাতত দেশের ১৩টি শহরে এই অত্যাধুনিক পরিষেবা চালু হয়। ২০২৩ সালের মধ্যে ভারতের প্রতিটি শহরে ৫-জি পরিষেবা চালু হবে।

কংগ্রেসের সভাপতি

২৬ অক্টোবর ২০২২ ভারতীয় কংগ্রেসের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন প্রবীণ নেতা মল্লিকার্জুন খাড়গে। ১৭ অক্টোবর ২০২২ সভাপতি নির্বাচনে ভোটাভুটি অনুষ্ঠিত হয় । ১৯ অক্টোবর ২০২২ নির্বাচিত নতুন সভাপতির নাম ঘোষণা করা হয়। ১৯৯৮ সালের পর গান্ধী পরিবারের বাইরে সভাপতি পেল দলটি। নেহেরু-গান্ধী পরিবারের বাইরে ১৯৯৭ সালে শেষবার সভাপতি নির্বাচিত হন কংগ্রেস কোষাধ্যক্ষ সীতারাম কেশরী। ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস দলের সর্বোচ্চ পদ সভাপতি। ২৮ ডিসেম্বর ১৮৮৫ জাতীয় কংগ্রেস প্রতিষ্ঠার পর উমেশচন্দ্র বন্দ্যোপাধ্যায় প্রথম সভাপতি নির্বাচিত হন । সোনিয়া গান্ধী কংগ্রেসের সবচেয়ে বেশি সময় দায়িত্বপালনকারী সভাপতি।

নতুন সেনা সর্বাধিনায়ক

২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ ভারতের দ্বিতীয় সেনা সর্বাধিনায়ক (Chief of Defence Staff-CDS) হিসেবে নিয়োগ পান লেফটেন্যান্ট জেনারেল (অব.) অনিল চৌহান। ৮ ডিসেম্বর ২০২১ হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় প্রথম সেনা সর্বাধিনায়ক জেনারেল বিপিন রাওয়াত প্রয়াত হওয়ার ৯ মাস পর এই পদে অনিলকে নিয়োগ দেওয়া হয়। ৬ জুন ২০২২ অনিল চৌহানের জন্য CDS নিয়োগের নিয়ম সংশোধন করে। কারণ, আগে চিফ অব ডিফেন্স স্টাফ নিয়োগ করা হতো শুধু কর্মরত লেফটেন্যান্ট জেনারেলদের মধ্য থেকে। আইন সংশোধনের ফলে, এখন থেকে অবসরপ্রাপ্ত লেফটেন্যান্ট জেনারেলরাও এই পদে নিয়োগ পাবেন। তবে এ ক্ষেত্রে তাদের বয়স ৬২ বছরের কম হতে হবে।

প্রধান বিচারপতি

১৭ অক্টোবর ২০২২ ভারতের ৫০তম প্রধান বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ পান ধনঞ্জয় ওয়াই চন্দ্রচূড়। ৯ নভেম্বর ২০২২ এ নিয়োগ কার্যকর হবে। এর মধ্য দিয়ে বাবার পর ছেলেও প্রধান বিচারপতি হওয়ার প্রথম নজির গড়েন দেশটিতে। ধনঞ্জয় চন্দ্রচূড়ের পিতা যশবন্ত চন্দ্রচূড় ২২ ফেব্রুয়ারি ১৯৭৮-১১ জুলাই ১৯৮৫ পর্যন্ত ভারতের সুপ্রিম কোর্টের ১৬তম প্রধান বিচারপতি ছিলেন। উল্লেখ্য, ৮ নভেম্বর ২০২২ ভারতের বর্তমান বিচারপতি উদয় উমেশ ললিতের কার্যমেয়াদ শেষ হবে।

ইউক্রেনের চার অঞ্চল রাশিয়ার দখলে

২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২২ ইউক্রেনে সামরিক অভিযান শুরু করে রাশিয়া। ৩০ সেপ্টেম্বর ইউক্রেনের চারটি অঞ্চল রুশ ফেডারশনের অন্তর্ভুক্ত করে। ১৯ অক্টোবর দখলকৃত অঞ্চলে সামরিক আইন জারি করেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

বিতর্কিত গণভোট

২৩-২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ ইউক্রেনের চারটি অঞ্চল লুহানস্ক, দোনেৎস্ক, খেরসন এবং জাপোরিঝঝিয়ায় গণভোট অনুষ্ঠিত হয়। গণভোটে রাশিয়ায় যুক্ত হওয়ার পক্ষে খেরসনে ৮৭.০৫%, দোনেৎস্কে ৯৯.২৩%, লুহানস্কে ৯৮.৪২% এবং জাপোরিঝঝিয়ায় ৯৩.১১% ভোটার ভোট দেয়। এরপর অঞ্চল চারটি রুশ ফেডারেশনে অন্তর্ভুক্ত করার জন্য ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২ রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ক্রেমলিনে এক জমকালো অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ঐ চার অঞ্চলগুলোতে নিয়োগকৃত নেতাদের সাথে চুক্তি স্বাক্ষর করেন। ২ অক্টোবর ২০২২ দেশটির সাংবিধানিক আদালত ভ্লাদিমির পুতিনের স্বাক্ষর করা চুক্তিকে বৈধ বলে স্বীকৃতি দেয়। অঞ্চলগুলোকে অন্তর্ভুক্ত করার লক্ষ্যে ৩ অক্টোবর রাশিয়ার পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ ডুমা এবং ৪ অক্টোবর উচ্চকক্ষ ‘ফেডারেশন কাউন্সিল’ অঞ্চলগুলোর অন্তর্ভুক্তির আইন সর্বসম্মতভাবে অনুমোদন করে। ৫ অক্টোবর ২০২২ ভ্লাদিমির পুতিন অন্তর্ভুক্ত করার আইনে স্বাক্ষর করেন। এছাড়া পুতিন আনুষ্ঠানিকভাবে ঐ চার অঞ্চলের বর্তমান মস্কো-সমর্থিত প্রধানদের ভারপ্রাপ্ত নেতা হিসেবে নিয়োগের ডিক্রিতেও স্বাক্ষর করেন। এর মাধ্যমে রাশিয়া আনুষ্ঠানিকভাবে ইউক্রেনীয় ভূখণ্ড রাশিয়ার অন্তর্ভুক্ত করে নেয়। রাশিয়ার সঙ্গে নতুন যুক্ত হওয়া চারটি অঞ্চলের মোট আয়তন প্রায় ১,০৯,০০০ বর্গকিলোমিটার। এই আয়তন ইউক্রেনের মোট আয়তনের ১৫ শতাংশের বেশি। এই অঞ্চলগুলোতে ৪০ লাখের বেশি মানুষের বসবাস। আর আবাদযোগ্য ভূমি আছে ৫৬ লাখ হেক্টরের বেশি। ক্রিমিয়া উপদ্বীপসহ বর্তমানে একত্রে এ পাঁচ অঞ্চলের আয়তন ইউক্রেনের প্রায় ২০ শতাংশের সমান ।

দখলকৃত অঞ্চলগুলো কেন গুরুত্বপূর্ণ?

গণভোটের মাধ্যমে ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলীয় চারটি অঞ্চলকে নিজেদের ভূখণ্ডের অংশ করে নিয়েছে রাশিয়া। নতুন যুক্ত হওয়া চারটি অঞ্চল কেবল রাশিয়ার ভূখণ্ডের আকারই বাড়াবে না, একই সঙ্গে অর্থনীতির জন্য নতুন দিগন্ত উন্মোচন করবে। কারণ, সাবেক ইউক্রেনীয় এ অঞ্চলগুলো শিল্প ও কৃষির দিক থেকে সম্ভাবনাময়।

অর্থনীতির কেন্দ্র দনবাস ➤ ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলীয় দনবাসের লুহানস্ক ও দোনেৎস্ক এলাকা ইউক্রেনের শিল্পাঞ্চল হিসেবে খ্যাত। ইউক্রেনের কয়লাভিত্তিক অর্থনীতির কেন্দ্র এ দনবাস এলাকা। খনিজসমৃদ্ধ এ অঞ্চলে রয়েছে ইউরোপের চতুর্থ বৃহত্তম কয়লাক্ষেত্র। এখানে উত্তোলনযোগ্য কয়লার মজুত রয়েছে এক হাজার কোটি টনের বেশি। এ ছাড়া দনবাসে থাকা ১১৫টি কয়লাখনি থেকে বছরে প্রায় ৭ কোটি টন কয়লা উৎপাদিত হয়। দোনেৎস্ক অঞ্চলে রয়েছে আটটি বড় বিদ্যুৎকেন্দ্র। অন্যদিকে লুহানস্ক হচ্ছে এই অঞ্চলের গুরুত্বপূর্ণ পরিবহনকেন্দ্র। পাশাপাশি এলাকাটি ধাতুবিদ্যা, যন্ত্রপাতি ও কৃষিশিল্পের জন্যও সুপরিচিত। এখানে রাসায়নিক, ওষুধ কারখানা ও বেশ কয়েকটি কয়লাখনি রয়েছে। সব মিলিয়ে ইউক্রেনের শিল্প উৎপাদনের প্রায় ২০ শতাংশের কেন্দ্রবিন্দু এই দনবাস এলাকা।

শক্তিকেন্দ্র জাপোরিঝঝিয়া ➤ আরেক অঞ্চল জাপোরিঝঝিয়ায় রয়েছে ইউরোপের বৃহত্তম পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র, জলবিদ্যুৎ কেন্দ্র ও বায়ুবিদ্যুৎ কেন্দ্র। ২০১৯-২০ বছরে এ অঞ্চল থেকে প্রায় ৪,০০০ কোটি কিলোওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদিত হয়েছে, যা ইউক্রেনের মোট বিদ্যুতের ২৫-২৭% । তাই এই এলাকাকে ইউক্রেনের শক্তিকেন্দ্র বলা হয়। এছাড়া এই অঞ্চলে অনেক বৃহৎ শিল্প ও যান্ত্রিক প্রকৌশল সুবিধাও রয়েছে। এগুলোর অন্যতম জাপোরিঝঝিয়া অটোমোবাইল কারখানা থেকে বছরে দেড় লাখ গাড়ি তৈরি হয়। আজভ সাগর ও ডিনিপার নদীর অববাহিকা থাকায় এ অঞ্চল অর্থনৈতিকভাবে ব্যাপক সম্ভাবনাময়।

কৃষিক্ষেত্রে এগিয়ে খেরসন ➤ জাহাজ নির্মাণের জন্য বিখ্যাত খেরসন অঞ্চল। পাশাপাশি কৃষিক্ষেত্রেও রয়েছে এই অঞ্চলের বড় অবদান। এই অঞ্চলে খাদ্যশস্য, সূর্যমুখী ও বিভিন্ন ধরনের শাকসবজি উৎপাদিত হয়। উর্বর জমি হওয়ায় এক মৌসুমে কখনো দুই বা তারও বেশি ফসল দিতে পারে । এ ছাড়া গবাদিপশু প্রজননেও এগিয়ে এই এলাকা।

চার অঞ্চলের সংক্ষিপ্ত পরিচিত

অঞ্চল

লুহানস্ক

দোনেৎস্ক

খেরসন

জাপোরিঝঝিয়া

অফিসিয়াল নাম

Luhansk People’s Republic

Donetsk People’s Republic

Kherson

Zaporizhzhia

আয়তন

২৬,৬৮৪ বর্গ কি.মি.

৪,৯০২ বর্গ কি.মি.

১৩৫.৭ বর্গ কি.মি.

৩৩৪ বর্গ কি.মি.

জনসংখ্যা

১৪,৮৫,৩০০

২২,২০,৫০০

২,৮৩,৬৪৯

৭,২২,৭১৩

ভাষা

রুশ

রুশ

রুশ ও ইউক্রেনীয়

রুশ ও ইউক্রেণীয়

গঠন

৫ মার্চ, ২০১৪

৭ এপ্রিল, ২০১৪

১৮ জুন, ১৭৭৮

১৭৭০

নতুন জেনারেল

৮ অক্টোবর, ২০২২ ভ্লাদিমির পুতিন ইউক্রেন যুদ্ধে নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য দেশটির বিমানবাহিনীর জেনারেল সের্গেই সুরোভিকিনকে দায়িত্ব দেন। ১১ অক্টোবর ১৯৬৬ সাইবেরিয়ার শহর নভোসিবিরিস্কেতে তার জন্ম। সুরোভিকিন তাজিকিস্তান, চেচনিয়া ও সিরিয়ার যুদ্ধক্ষেত্রে বীরত্বের সঙ্গে লড়েছেন। ২০১৭ সালে সিরিয়ার যুদ্ধে তিনি রুশ বিমানবাহিনীর নেতৃত্ব দেন। সিরিয়ার যুদ্ধে সাফল্য অর্জন করে তাকে ‘রাশিয়ার বীর’ খেতাব দেওয়া হয়। সামরিক জীবনে ২ বার জেল খেটেছেন তিনি। সামরিক অভিযানে জেনারেল সুরোভিকিন অত্যন্ত কঠোর দৃষ্টিভঙ্গি পোষণ করেন এবং অর্থডক্স খ্রিষ্টান হিসেবে ব্যক্তিগত জীবনে তিনি ধর্ম পালন করেন। এ কারণে তাকে তার সহকর্মীরা ‘জেনারেল আরমাগেডন’ নামে অভিহিত করে থাকেন। আরমাগেডনকে বলা হয় বাইবেলে বর্ণিত মহাকালের শেষ প্রান্তে শুভ এবং অশুভ শক্তির শেষ যুদ্ধ।

কার্চ ব্রিজ

৮ অক্টোবর, ২০২২ ইউক্রেনের স্থানীয় সময় সকাল ছয়টায় রাশিয়ার গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা ‘কার্চ ব্রিজ’ বিস্ফোরণে আংশিক ধসে যায়। রাশিয়ার গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনাগুলোর একটি কার্চ সেতু। এটির মাধ্যমে রাশিয়ার মূল ভূখণ্ডের সঙ্গে ক্রিমিয়াকে যুক্ত করা হয়েছে। সেতুটি মূলত সড়ক ও রেল যোগাযোগের। ১৯ কিলোমিটার দীর্ঘ এ সেতু কার্চ প্রণালির ওপর অবস্থিত। ২০১৪ সালে ক্রিমিয়া দখলের পর ২০১৮ সালে এটি উদ্বোধন করেন প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। ইউরোপের সবচেয়ে বড় সেতুও এটি; যা নির্মাণে খরচ হয় ৩৭০ কোটি মার্কিন ডলার । এ সেতু ব্যবহার করে ইউক্রেনের দক্ষিণাঞ্চলে সেনা ও সামরিক সরঞ্জাম পাঠিয়ে থাকে রুশ সরকার। ফলে সেতুটি ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় ক্রিমিয়ার সঙ্গে সড়ক যোগাযোগে যেমন বিঘ্ন ঘটছে, তেমনি রুশ সরকারের জন্য সামরিক সরঞ্জাম পাঠানো কঠিন হয়ে পড়েছে।

নোবেল পুরস্কার ২০২২

সুইডিশ বিজ্ঞানী আলফ্রেড নোবেলের নামে ও তার রেখে যাওয়া অর্থে ১৯০১ সাল থেকে নোবেল পুরস্কার প্রবর্তিত হয়। প্রতিবছর চিকিৎসা, পদার্থ, রসায়ন, সাহিত্য, শান্তি ও অর্থনীতি-এ ছয় শাখায় নোবেল দেওয়া হয়। ২০২২ সালের পুরস্কারপ্রাপ্তদের নিয়ে বিশেষ আয়োজন।

মোট বিজয়ী: ১২ জন ও ২টি সংস্থা এর মধ্যে পুরুষ ১০ ও নারী ২ সর্বকনিষ্ঠ বিজয়ী ➤ ক্যারোলিন আর বার্তোজ্জি (৫৬ বছর) বয়োজ্যেষ্ঠ বিজয়ী ➤ অ্যানি আরনো (৮২ বছর) পুরস্কারের অর্থমূল্য ➤ ১ কোটি ক্রোনার।

সাহিত্য

অ্যানি আরনো

জন্ম: ১ সেপ্টেম্বর ১৯৪০ লিলিবোন, ফ্রান্স।

• প্রথম ফরাসি নারী লেখক হিসেবে নোবেল পুরস্কার লাভ।

• সাহিত্যে নোবেল পেয়েছেন মোট ১১৯ জন। এর মধ্যে ১০২ জন পুরুষ এবং ১৭ জন নারী।

সাহিত্যকর্ম

শরীর ও যৌনতা, নিবিড় সম্পর্ক, সামাজিক বৈষম্য আর শিক্ষার ভেতর দিয়ে শ্রেণিবদলের অভিজ্ঞতা, সময় ও স্মৃতি এবং এই যাপিত জীবনের অভিজ্ঞতাই তার লেখালেখির উপকরণ। ৩০টিরও বেশি রচনা রয়েছে তার। এর মধ্যে বেশিরভাগই আত্মজীবনীমূলক ও জীবনঘনিষ্ঠ। অ্যানি আরনোর লেখা প্রথম গ্রন্থ Les armoires Vides (Cleaned Out) প্রকাশিত হয় ১৯৭৪ সালে, যেখানে তিনি নরম্যান্ডিতে তার জীবনযাপনের স্মৃতি রোমন্থন করেন। তবে ১৯৮৩ সালে লেখা La place (A Man’s Place) গ্রন্থ দিয়ে তিনি নিজের সাহিত্যিক প্রতিভার সাথে পাঠকদের পরিচয় করিয়ে দেন। অ্যানি আরনোর ‘দি হ্যাপেনিং’ বইয়ের চলচ্চিত্রায়ন হয়েছে, পরিচালক অড্রে দিয়ান। চলচ্চিত্রটি ২০২১ সালে ভেনিস আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে গোল্ডেন লায়ন পুরস্কার লাভ করে। তার The Years বইটি ২০০৮ সালে ফ্রান্সে এবং ২০১৬ সালে ইতালিতে পুরস্কৃত হয়। ২০১৯ সালে ম্যান বুকার ইন্টারন্যাশনাল পুরস্কারের সংক্ষিপ্ত তালিকায়ও জায়গা করে নেয় বইটি।

তার উল্লেখযোগ্য সাহিত্যকর্ম-

• Les armoires vides (1974)

• La place (1983)

• Une femme (1987)

• La honte (1996)

• L’événement (2000)

• Se perdre (2001)

• L’occupation (2002)

• Les années (2008)

• Mémoire de fille (2016)

চিকিৎসা বিজ্ঞান

সোয়ান্তে প্যাবো

জন্ম: ২০ এপ্রিল ১৯৫৫ স্টকহোম, সুইডেন।

প্যাবো ১৯৯৯ সালে ‘বিবর্তনমূলক নৃবিজ্ঞান’-এর জন্য ম্যাক্স প্ল্যাঙ্ক ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠা করেন।

• প্যাবোর বাবা সুনে বার্গস্ট্রোম ১৯৮২ সালে চিকিৎসাবিজ্ঞানে নোবেল পুরস্কার লাভ করেন।

• সুনে বার্গস্ট্রোম ও প্যারা পিতা-পুত্র হিসেবে চিকিৎসাবিজ্ঞানে প্রথম নোবেল পুরস্কার লাভ করেন।

রসায়ন

ক্যারোলিন আর. বার্তোজ্জি

জন্ম: ১০ অক্টোবর, ১৯৬৬, যুক্তরাষ্ট্র।

মর্টেন মেলডাল

জন্ম: ১৯৫৪, ডেনমার্ক।

কে.ব্যারি শার্পলেস

জন্ম: ২৮ এপ্রিল, ১৯৪১, ফিলাডেলফিয়া, পেনসিলভানিয়া, যুক্তরাষ্ট্র।

শান্তি

অ্যালেস বিয়ালিয়াৎস্কি

জন্ম: ২৫ সেপ্টেম্বর, ১৯৬২ কারেলিয়া, রাশিয়া।

মেমোরিয়াল

স্থাপিত: ১৯৮৭, মস্কো, রাশিয়া।

সেন্টার ফর সিভিল লিবার্টিস

স্থাপিত: ২০০৭, কিয়েভ, ইউক্রেন।

বেলারুশ, রাশিয়া ও ইউক্রেনে মানবাধিকার, গণতন্ত্র ও শান্তিপূর্ণ সহাবস্থানে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখার জন্য

অ্যালেস বিয়ালিয়াৎস্কি

১৯৮০’র দশকে বেলারুশে গণতান্ত্রিক আন্দোলনের অন্যতম সূচনাকারী অ্যালেস বিয়ালিয়াৎস্কি। তার জন্ম রাশিয়ার কারেলিয়ায় হলেও তিনি বসবাসের জন্য বেলারুশে চলে যান। ১৯৯৬ সালে তিনি ভিয়াসনা (বসন্ত) হিউম্যান রাইটস সেন্টার নামের একটি মানবাধিকার সংগঠন প্রতিষ্ঠা করেন। বেলারুশের নেতা আলেকজান্ডার লুকাশেঙ্কো বিক্ষোভে দমনপীড়ন চালালে এই সংগঠন গড়ে তোলেন তিনি । বেলারুশের কর্তৃত্ববাদী সরকার যাদের কারাগারে আটকে রেখেছে, তাদের ও তাদের পরিবারকে সহায়তা করে থাকে অ্যালেস বিয়ালিয়াৎস্কির সংগঠন। বেশ কয়েকবার কারাবরণ করতে হয়েছে তাকে। কর ফাঁকির অভিযোগে ২০১১-২০১৪ সাল পর্যন্ত তাকে কারাগারে থাকতে হয়েছে। ২০২০ সালে কারচুপি করে আবারও ক্ষমতায় আসেন লুকাশেঙ্কো। তখনও গ্রেপ্তার হন অ্যালেস বিয়ালিয়াৎস্কি। এরপর ছাড়া পেয়ে ২০২১ সালের জুলাইয়ে আবার গ্রেপ্তার হন। সেই থেকে কারাগারে তিনি। নোবেল পুরস্কার ঘোষণার সময় কারাবন্দি থাকা চতুর্থ ব্যক্তি অ্যালেস বিয়ালিয়াৎস্কি।

মেমোরিয়াল

সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নের মানবাধিকারকর্মীরা মানবাধিকার সংস্থা ‘মেমোরিয়াল’ প্রতিষ্ঠা করেন। তাদের মূল লক্ষ্য ছিল কমিউনিস্ট শাসনের সময় নিপীড়নের শিকার হওয়া ব্যক্তিরা যেন কখনোই সেটা ভুলে না যায় তা নিশ্চিত করা। প্রতিষ্ঠাতাদের মধ্যে ছিলেন শান্তিতে নোবেল পুরস্কার বিজয়ী আন্দ্রেই শাখারভ এবং মানবাধিকার আইনজীবী স্বেতলানা গানুশকিনা। ‘মেমোরিয়াল’ এই ধারণার ওপর ভিত্তি করে প্রতিষ্ঠা করা হয় যে, অতীতের অপরাধের মোকাবিলা নতুনকে প্রতিরোধের জন্য অপরিহার্য। চেচেন যুদ্ধের সময় জনগণের বিরুদ্ধে রুশ ও রুশপন্থি বাহিনীর অত্যাচার এবং যুদ্ধাপরাধের তথ্য সংগ্রহ ও যাচাই বাছাইয়ের কাজ করে সংস্থাটি। রাশিয়ার সবচেয়ে বড় মানবাধিকার সংগঠন এটি। দেশটিতে যে রাজনৈতিক দমনপীড়ন ও মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা ঘটে, সেই সব নথি সংগ্রহ করে এই সংগঠন। ২০২১ সালে রাশিয়ার সুপ্রিম কোর্ট এই সংগঠন বন্ধ করে দেওয়ার আদেশ দেন। শান্তিতে নোবেল পুরস্কার জয়ের কয়েক ঘণ্টার মধ্যে মানবাধিকার সংস্থা মেমোরিয়ালের প্রধান কার্যালয় বাজেয়াপ্ত করার নির্দেশ দেয় রাশিয়ার একটি আদালত।

সেন্টার ফর সিভিল লিবার্টিস

সেন্টার ফর সিভিল লিবার্টিস ইউক্রেনের একটি শীর্ষস্থানীয় মানবাধিকার সংগঠন। ইউক্রেনে মানবাধিকার ও গণতন্ত্রকে এগিয়ে নেওয়ার উদ্দেশ্যে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। প্রতিষ্ঠানটি ইউক্রেনের নাগরিক সমাজকে শক্তিশালী করা এবং ইউক্রেনকে একটি পূর্ণাঙ্গ গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রে পরিণত করার জন্য সরকারকে চাপ প্রয়োগ করে থাকে। ইউক্রেনে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের সঙ্গে অধিভুক্ত হতে সেন্টার ফর সিভিল লিবার্টিস সক্রিয়ভাবে কাজ করছে। দখলকৃত ক্রিমিয়ায় রাজনৈতিক নিপীড়ন পর্যবেক্ষণ করে আসছে সংগঠনটি। এ ছাড়া ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২২ রাশিয়া ইউক্রেনে হামলা চালানোর পর থেকে যুদ্ধাপরাধের নথি সংগ্রহ করছে তারা। সংগঠনটি দনবাস অঞ্চলে যুদ্ধের সময় যুদ্ধাপরাধ ও মানবতাবিরোধী অপরাধ নথিভুক্ত করে। তারা ক্রেমলিনের রাজবন্দিদের মুক্তির জন্য আন্তর্জাতিক পর্যায়ে প্রচার চালিয়ে আসছে।

নোবেল বিজয়ী আপডেট

ক্যাটাগরি

পুরস্কার

একক

যৌথ

ত্রয়ী

মোট বিজয়ী

পদার্থবিদ্যা

১১৬

৪৭

৩২

৩৭

২২২

রসায়ন

১১৪

৬৩

২৪

২৬

১৮৯

চিকিৎসা

১১৩

৪০

৩৪

৩৯

২২৫

সাহিত্য

১১৫

১১১

১১৯

শান্তি

১০৪

৬৯

৩১

১১০+৩০*

অর্থনীতি

৫৪

২৫

২০

৯২

মোট

৬১৫

৩৫৫

১৪৬

১১৪

৯৮৯

➤ ২৭টি সংস্থা ৩০ বার নোবেল পুরস্কার লাভ করে।

শান্তি পুরস্কার ঘোষণার সময় কারাবন্দি অন্য ৩ জন

নাম

দেশ

সাল

কার্ল ভন ওজিয়েৎস্কি

জার্মানি

১৯৩৫

অং সান সু’চি

মিয়ানমার

১৯৯১

লিউ জিয়াবো

চীন

২০১০

পদার্থবিজ্ঞান

অ্যালাইন অ্যাসপেক্ট

জন্ম: ১৫ জুন, ১৯৪৭, এজেন, ফ্রান্স।

জন এফ. ক্লজার

জন্ম: ১ ডিসেম্বর, ১৯৪২, পাসাডেনা, ক্যালিফোর্নিয়া, যুক্তরাষ্ট্র।

অ্যান্টন জেলিঙ্গার

জন্ম: ২০ মে, ১৯৪৫ রিয়েদ ইম ইনক্রেইস, অস্ট্রিয়া।

বিজড়িত ফোটন নিয়ে পরীক্ষা, বেল অসমতার লঙ্ঘন প্রতিষ্ঠা এবং কোয়ান্টাম তথ্যবিজ্ঞান গবেষণায় অবদানের জন্য

গবেষণা

কোয়ান্টাম বলবিদ্যার অন্যতম বিস্ময়কর বিষয় কোয়ান্টাম অ্যান্টেঙ্গেলমেন্ট, যেখানে দুটি ফোটন কণা একে অন্যের থেকে আলাদা হলেও একীভূত ইউনিট বা এককের মতো আচরণ করে। ১৯৩৫ সালে কোয়ান্টাম অ্যান্টেঙ্গেলমেন্ট-এর ধারণা দেন আলবার্ট আইনস্টাইন। আইনস্টাইন, পেডোলস্কি ও রোজেন মিলে গবেষণাপত্রে একটি থট এক্সপেরিমেন্ট বা মানস পরীক্ষার মাধ্যমে এ বিষয়টি তুলে ধরেন। তাদের দাবি ছিল, কোয়ান্টাম মেকানিকসের অনুসিদ্ধান্ত সঠিক হলে আলোর চেয়ে বেশি বেগে তথ্য বিনিময় হতে পারে, যা অসম্ভব। কারণ, কোনো কিছুই আলোর চেয়ে বেশি বেগে চলতে পারে না। ১৯৬৪ সালে জন স্টুয়ার্ট বেল এই গবেষণাপত্রের অভিযোগের ওপর আরও কাজ করে বেল থিওরেম প্রকাশ করেন। ১৯৭২ সালে ক্লজার ও ফ্রিডম্যান বেলের কাজের ওপর ভিত্তি করে প্রথম পরীক্ষালব্ধ প্রমাণ হাজির করেন। ১৯৮০-৮২ সালে বিজ্ঞানী জন ক্লজারের সেটআপের কিছু ত্রুটি দূর করে আরও শক্ত প্রমাণ দেন অ্যালাইন অ্যাসপেক্ট। ১৯৯৮ সালে অ্যান্টন জেলিঙ্গার তার পরীক্ষায় কোয়ান্টাম অ্যান্টেঙ্গেলমেন্ট ব্যবহার করে একটি সিস্টেমের কোয়ান্টাম স্টেট আরেকটি দূরের সিস্টেমে পাঠাতে সক্ষম হন। আধুনিক সময়ের কোয়ান্টাম ইনফরমেশন দাঁড়িয়ে আছে কোয়ান্টাম সিস্টেমের এই অ্যান্টেঙ্গেলমেন্ট ধর্মের ওপর। তাই তাদের এই কাজ কোয়ান্টাম কম্পিউটেশনেও অনেক গুরুত্বপূর্ণ বলে বিবেচিত। নতুন প্রজন্মের শক্তিশালী কম্পিউটার ও যোগাযোগ সরঞ্জাম তৈরিতে এই ত্রয়ীর গবেষণা গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে।

অর্থনীতি

বেন এস বার্নানকে

জন্ম: ১৩ ডিসেম্বর ১৯৫৩, অগাস্টা, জর্জিয়া, যুক্তরাষ্ট্র।

ডগলাস ডব্লিউ ডায়মন্ড

জন্ম: ১৯৫৩, যুক্তরাষ্ট্র।

ফিলিপ এইচ ডিবভিগ

জন্ম: ২২ মে, ১৯৫৫, যুক্তরাষ্ট্র

ব্যাংক ও অর্থনৈতিক সংকট নিয়ে গবেষণার জন্য

গবেষণা

ব্যাংক ধসে ঘনীভূত হয় অর্থনৈতিক সংকট। ১৯৮০’র দশক থেকেই তিন অর্থনীতিবিদ গবেষণার মাধ্যমে আর্থিক সংকট মোকাবিলায় ব্যাংকের বহুমুখী ভূমিকায় আলোকপাত করেন। প্রবৃদ্ধি বা আর্থিক বিপর্যয়ের ক্ষেত্রে ব্যাংকের ভূমিকা কতটা কোনো দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা সে দেশের ব্যাংক খাতের পেশাদারি দক্ষতা ও কার্যকলাপের ওপর কীভাবে নির্ভর করে, কীভাবেই বা তা প্রভাব ফেলতে থাকে স্থান-কালের গতি অতিক্রম করে এসব প্রশ্নের উত্তর খুঁজেন তিন অর্থনীতিবিদ। ব্যাংকিং বিষয়ক আধুনিক গবেষণায় দেখা গেছে, সংকটের সময় ব্যাংকব্যবস্থা কীভাবে সুরক্ষিত রাখতে হয়। আবার ব্যাংক ধসে পড়লে কীভাবে আর্থিক সংকট ঘনীভূত হয়, তা-ও দেখা গেছে গবেষণায়। ডায়মন্ড ও ডিবডিগ দেখান, ব্যাংক কীভাবে এই সমস্যার সেরা সমাধান দিতে পারে। অন্যদিকে ডায়মন্ড দেখিয়েছেন, ব্যাংক সমাজের জন্য আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ কাজ করতে পারে। সঞ্চয়কারী ও আমানতকারীর মধ্যে মধ্যস্থতাকারীর ভূমিকা পালন করে ঋণগ্রহীতার ঋণযোগ্যতা নিরূপণে ব্যাংকের অবস্থান সবচেয়ে সুবিধাজনক। আর ঋণ যাতে ভালো বিনিয়োগে ব্যবহৃত হয়, তা নিশ্চিত করাও ব্যাংকের কাজ। আধুনিক কালের ইতিহাসে সবচেয়ে ভয়াবহ অর্থনৈতিক সংকট ছিল ১৯৩০-এর সংকট। বেন বার্নানকে সেই সংকট নিয়ে গবেষণা করেন। তিনি দেখান, বিপুলসংখ্যক আমানতকারী একসঙ্গে ব্যাংক থেকে অর্থ তুলে নেওয়ার (ব্যাংক রান) কারণে ১৯৩০-এর দশকে অর্থনৈতিক সংকট গভীর ও দীর্ঘস্থায়ী হয়েছে।

বি:দ্র: ১৯০১ সালে পদার্থবিজ্ঞান, রসায়ন, চিকিৎসাবিজ্ঞান, সাহিত্য ও শান্তিতে নোবেল পুরস্কারে গোড়াপত্তন ঘটলেও এ তালিকায় অর্থনীতি যুক্ত হয় ১৯৬৮ সালে। অর্থনীতিতে নোবেল দেওয়া হয় ১৯৬৯ সাল থেকে। ১৯৬৮ সালে সুইডিশ কেন্দ্রীয় ব্যাংক সেভেরিজে রিক্সব্যাংক-এর ৩০০ বছর পূর্তিতে নোবেল ফাউন্ডেশনকে যে বিপুল অর্থ দান করে তা দিয়ে অর্থনীতিতে নোবেল প্রদান করা হয় । আলফ্রেড নোবেলের স্মরণে এই পুরস্কারের পুরো নাম রাখা হয় ‘দ্য সেভেরিজেস রিক্সব্যাংক প্রাইজ ইন ইকোনমিক সায়েন্সেস ইন মেমোরি অব আলফ্রেড নোবেল’।

জাতিসংঘ জলবায়ু পরিবর্তন সম্মেলন

৬-১৮ নভেম্বর ২০২২ মিসরের শার্ম আল শেখে COP27 অনুষ্ঠিত হবে। সম্মেলনগুলো প্রতিবারই জলবায়ু পরিবর্তন রুখতে নানা বিতর্ক, বড় বড় প্রতিশ্রুতি আর চুক্তির মধ্য দিয়ে শেষ হয়। কিন্তু পরিবেশ ও প্রকৃতির তেমন কোনো উন্নতিই হয়নি।

জলবায়ু সম্মেলনের উৎপত্তি

বিশ্ব পরিবেশ ও জলবায়ু ইস্যুতে প্রথমবারের মতো ৫-১৬ জুন ১৯৭২ সুইডেনের স্টকহোমে এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে জাতিসংঘের পরিবেশ সংস্থা জাতিসংঘ পরিবেশ কর্মসূচি (UNEP) গঠিত হয়। স্টকহোম সম্মেলনের ২০তম বার্ষিকীতে ৩-১৪ জুলাই ১৯৯২ ব্রাজিলের রিও ডি জেনেরিওতে প্রথম ধরিত্রী সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এরপর একে একে অনুষ্ঠিত হয় আরও তিনটি ধরিত্রী সম্মেলন। ১৯৯২ সালের সম্মেলনে আলোচনা আর বিতর্কের মধ্য দিয়ে গৃহীত হয় ৮০০ পৃষ্ঠার এজেন্ডা-২১। ২৭টি নীতিমালা নিয়ে ঘোষণা করা হয় Rio Declaration এ সম্মেলনে স্বাক্ষরিত হয়  United Nations Framework Convention on Climate Change (UNFCCC)। একই সাথে সিদ্ধান্ত হয় জলবায়ু সংক্রান্ত কাজের অগ্রগতি মূল্যায়নে প্রতি বছর অনুষ্ঠিত হবে UNFCCC’র বৈঠক।

আলোচ্য বিষয়

UNFCCC’র বার্ষিক সম্মেলনে জলবায়ু পরিবর্তনের যে বিষয় নিয়ে সাধারণত আলোচনা হয় তা হচ্ছে- জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবিলায় সম্ভাব্য প্রশমন বা নিরসনের পন্থা জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে পরিবেশের ওপর যেসব অপরিবর্তনীয় প্রভাব সৃষ্টি হয়, তা কাটিয়ে উঠতে অভিযোজন নীতি ও পদ্ধতি গ্রহণ  উন্নয়নশীল দেশগুলো যাতে জীবাশ্ম জ্বালানি ব্যবহার থেকে বেরিয়ে আসতে পারে ও জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবিলায় আরও সহনশীল ও কার্যকর পদক্ষেপ নিতে পারে সে লক্ষ্যে ধনী দেশগুলোর পক্ষ থেকে সম্ভাব্য আর্থিক সহায়তার বিষয় আলোচনা হয়।

COP কী?

COP’র পূর্ণরূপ Conference of the Parties। অর্থাৎ কোনো কনভেনশনে স্বাক্ষরকারী দেশসমূহের মধ্যে অনুষ্ঠিত বৈঠক। UNFCCC স্বাক্ষরকারী দেশগুলোর বার্ষিক বৈঠকের নামও COP বা জাতিসংঘ জলবায়ু পরিবর্তন সম্মেলন। ২৮ মার্চ-৭ এপ্রিল ১৯৯৫ জার্মানির বার্লিনে প্রথম COP অনুষ্ঠিত হয় । এখন পর্যন্ত ২৬টি COP অনুষ্ঠিত হয়েছে।

গ্রিন ক্লাইমেট ফান্ড (GCF)

৭ ডিসেম্বর ২০০৯-১৮ ডিসেম্বর ২০০৯ ডেনমার্কের কোপেনহেগেনে অনুষ্ঠিত COP15 সম্মেলনে গ্রিন ক্লাইমেট ফান্ড (GCF) গঠনের অঙ্গীকার করা হয়। ২০১০ সালে UNFCCC’র আওতায় GCF গঠিত হয়। এর মাধ্যমে জলবায়ু পরিবর্তনের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় উন্নয়নশীল দেশগুলোর উদ্যোগে অর্থ সহায়তা দেওয়া হয়।

COP-এ পর্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ দুটি চুক্তি বা প্রটোকল স্বাক্ষর করা হয়। যথাকিয়োটো প্রটোকল এবং প্যারিস চুক্তি।

কিয়োটো প্রটোকল

১-১১ ডিসেম্বর ১৯৯৭ জাপানের কিয়োটো নগরীতে অনুষ্ঠিত হয় COP3 । সম্মেলনে গৃহীত প্রটোকলে ১৯৯০ সালের ভূমণ্ডলের স্তরকে ভিত্তিরূপে ধরে উন্নত দেশগুলোর যৌথ নিঃসরণ ৬টি গ্রিনহাউস গ্যাস ২০০৮-২০১২ সালের মধ্যে ৫.২% কমানোর বিষয় অন্তর্ভুক্ত করা হয় । চুক্তি কার্যকরের শর্ত ছিল কমপক্ষে ৫৫টি দেশের অনুসমর্থন, যারা বিশ্বের মোট ৫৫% CO2 নির্গমনকারী। প্রয়োজনীয় শর্ত পূরণের তিন মাস পর কিয়োটো প্রটোকল কার্যকর হবে। ২৩ মে ২০০২ আইসল্যান্ড ৫৫তম দেশ হিসেবে কিয়োটো প্রটোকল অনুমোদন করে এরপর ১৮ নভেম্বর ২০০৪ রাশিয়া কিয়োটো প্রটোকল অনুমোদন করলে শর্তটি পূরণ হয়। ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০০৫ কিয়োটো প্রটোকল কার্যকর হয়। ১৭ নভেম্বর ২০০৬ কেনিয়ার নাইরোবিতে প্রথম কিয়োটো প্রটোকল সংশোধিত হয়। ৮ ডিসেম্বর ২০১২ কাতারের দোহায় দ্বিতীয় দফায় সংশোধন করে ২০২০ সাল নাগাদ বর্ধিত করা হয়, যা দোহা সংশোধনী নামে পরিচিত । কনভেনশনের শর্ত অনুযায়ী, ১৪৪টি দেশ কিয়োটো প্রটোকলের সংশোধন অনুসমর্থন না করায় – অদ্যাবধি প্রটোকলের দ্বিতীয় পর্যায় কার্যকর হতে পারেনি।

প্যারিস চুক্তি

৩১ ডিসেম্বর ২০১২ কিয়োটো প্রটোকলের মেয়াদ শেষ হওয়ার পর কোনো রকম আইনি বাধ্যবাধকতা না থাকায় গ্রিনহাউস গ্যাস নির্গমন যথেচ্ছাচারভাবে বাড়তে থাকে। এরপর দীর্ঘ তিন বছর ধরে আলাপ-আলোচনার পর ৩০ নভেম্বর-১২ ডিসেম্বর ২০১৫ ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে অনুষ্ঠিত COP21 সম্মেলনে গৃহীত হয় প্যারিস চুক্তি। ২২ এপ্রিল ২০১৬ প্যারিস চুক্তি স্বাক্ষরের জন্য উন্মুক্ত করা হয়। চুক্তির আওতায় পৃথিবীর উষ্ণতা বৃদ্ধির হার ২° সেলসিয়াসের নিচে রাখতে বিশ্বজুড়ে কার্বন নিঃসরণ কমানোর বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়। একই সঙ্গে ১.৫° সেলসিয়াসের মধ্যে রাখার জন্য প্রচেষ্টার কথা উল্লেখ করা হয়। চুক্তিটি কার্যকরের জন্য শর্ত ছিল গ্রিনহাউজ গ্যাসের অন্তত ৫৫% নির্গমন করে এমন অন্তত ৫৫টি দেশকে অনুসমর্থন ও ঐসব দেশের পার্লামেন্টে অনুমোদন করতে হবে। প্রয়োজনীয় শর্ত পূরণের ৩০ দিন পর প্যারিস চুক্তিটি কার্যকর হবে। ৫ অক্টোবর ২০১৬ ইউরোপীয় ইউনিয়ন (EU) চুক্তিটি অনুমোদন করলে প্রয়োজনীয় শর্ত পূরণ হয়। এরপর ৪ নভেম্বর ২০১৬ চুক্তিটি কার্যকর হয়।

অন্যান্য

Confidence Man: The Making of Donald Trump and the Breaking of America

• নিউইয়র্ক টাইমস পত্রিকার সাংবাদিক ম্যাগি হ্যাবারম্যানের রচিত গ্রন্থ। ৪ অক্টোবর ২০২২ প্রকাশিত গ্রন্থটি লেখা হয়েছে ২০০ জনেরও বেশি মানুষের সাক্ষাৎকার থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে। গ্রন্থটিতে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের জীবনের নানা তথ্য রয়েছে।

• Sheikh Hasina: A True Legend

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে তৈরি প্রামাণ্যচিত্র। পরিচালনা করেন আয়শা এরিন। ৪০ মিনিটের এ প্রামাণ্যচিত্রটিতে ধারাভাষ্য দেন এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন।

ঘূর্ণিঝড় সিত্রাং

২৪ অক্টোবর ২০২২ রাতে ঘূর্ণিঝড় সিত্রাং (Sitrang) বাংলাদেশের উপকূলবর্তী বরিশাল, চট্টগ্রাম ও খুলনা বিভাগে আঘাত হানে। যার প্রভাবে রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে প্রবল বৃষ্টিপাত এবং ভয়াবহ ক্ষয়ক্ষতি হয়। ঘূর্ণিঝড় সিত্রাং নামকরণ করে থাইল্যান্ড। সিত্রাং শব্দটি ভিয়েতনামিজ। সিত্রাং অর্থ পাতা। সিত্রাং থাইল্যান্ডের বাসিন্দাদের ডাক নামও। সিত্রাং এর উৎপত্তি আন্দামান সাগরে। ভারত মহাসাগরে সৃষ্ট পরবর্তী ঝড়ের নাম ‘মান্দুস’ (Mandous), যার নামকরণ করে সৌদি আরব।

ক্রীড়াজগৎ

ব্যালন ডি’অর ২০২২

১৮ অক্টোবর, ২০২২ ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসের থিয়েটার দ্য শ্যালেতে বিশ্ব ফুটবলের অন্যতম গৌরবময় পুরস্কার ব্যালন ডি’অর-এর আসর বসে। ১৯৫৬ সাল থেকে ফ্রান্স ফুটবল ম্যাগাজিন প্রতিবছর দেয় মর্যাদাপূর্ণ এ অ্যাওয়ার্ড।

সেরা ফুটবলার (ব্যালন ডিঅর)

• পুরুষ: করিম বেনজেমা (রিয়াল মাদ্রিদ-ফ্রান্স)

• নারী: অ্যালেক্সিয়া পুতেয়াস (বার্সেলোনা-স্পেন)

সেরা স্ট্রাইকার (জার্ড মুলার ট্রফি)

•  রবার্ট লেভান্ডভোস্কি (বার্সেলোনা-পোল্যান্ড)

তরুণ ফুটবলার (কোপা ট্রফি)

•  গাভি (বার্সেলোনা-স্পেন)

সেরা গোলরক্ষক (ইয়াসিন ট্রফি)

•  থিবো কোর্তোয়া (রিয়াল মাদ্রিদ-বেলজিয়াম)

সক্রেটিস অ্যাওয়ার্ড (প্রথমবার)

• সাদিও মানে (লিভারপুল-সেনেগাল )

বর্ষসেরা ক্লাব: ম্যানচেস্টার সিটি

১৯৯৮ সালে সাবেক তারকা জিনেদিন জিদানের পর এই প্রথম কোনো ফরাসি ফুটবলার ব্যালন ডি’অর জয় করেন। এর আগে ব্যালন। ডি’অর বিজয়ী ফরাসি খেলোয়াড় হলেন রেমন্ড কোপা (১৯৫৮); মিশেল প্লাতিনি (১৯৮৩, ১৯৮৪, ১৯৮৫), জিন-পিয়েরে পাপিন (১৯৯১) ও জিদান (১৯৯৮)। সেই সাথে সবচেয়ে বয়স্ক ফুটবলার হিসেবে বেনজেমা (৩৪ বছর) ব্যালন ডি’অর জিতলেন। কেভিন ডি ব্রুইনা ও সাদিও মানেকে পেছনে ফেলেন। উল্লেখ্য, ব্যক্তি হিসেবে সর্বাধিক ৭ বার আর্জেন্টাইন কিংবদন্তি লিওনেল মেসি ব্যালন ডি’অর জয় করেন।

মেসির শততম জয়

২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২২ নিউজার্সির রেড বুল অ্যারেনায় প্রীতি ম্যাচে জ্যামাইকার বিপক্ষে ৫৬ মিনিটে লাওতারো মার্তিনেজের বদলি হিসেবে নেমে দেশের হয়ে শততম জয় পান লিওনেল মেসি। আর্জেন্টিনার জার্সিতে মেসির গোলের সংখ্যা ১৬৪ ম্যাচে ৯০টি। আন্তর্জাতিক ফুটবলে তার চেয়ে বেশি গোল আছে শুধু দু’জনের ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো (১৯১ ম্যাচে ১১৭ গোল) আর ইরানের আলি দাইয়ির (১৪৮ ম্যাচে ১০৯ গোল) ।

চ্যাম্পিয়নস ট্রফি হকি

২৮ অক্টোবর-১৭ নভেম্বর ২০২২ মওলানা ভাসানী স্টেডিয়ামে শুরু হয় ছয় দলের প্রথম ফ্র্যাঞ্চাইজি চ্যাম্পিয়নস ট্রফি হকি লিগ। ১০ অক্টোবর, ২০২২ ঢাকা ক্লাবে প্লেয়ার্স ড্রাফট অনুষ্ঠানে স্থানীয় ও বিদেশি আইকনসহ প্রতিটি দল ১৭ জন করে খেলোয়াড় বেছে নেয়। ফ্র্যাঞ্চাইজি দলগুলো হলো- একমি চট্টগ্রাম  মেট্রো এক্সপ্রেস বরিশাল মোনার্ক মার্ট পদ্মা রূপায়ন গ্রুপ কুমিল্লা সাইফ পাওয়ার টেক খুলনা  ওয়ালটন ঢাকা।

টি-২০ বিশ্বকাপ-২০২২

মেইয়াপ্পনের হ্যাটট্রিক

১৮ অক্টোবর, ২০২২ টি-২০ বিশ্বকাপ ২০২২-এর প্রথম হ্যাটট্রিক করেন সংযুক্ত আরব আমিরাতের কার্তিক মেইয়াপ্পন। শ্রীলংকার বিপক্ষে করা তার এ হ্যাটট্রিকটি টি-২০ বিশ্বকাপে পঞ্চম। আন্তর্জাতিক টি-২০’র ৩৯তম হ্যাটট্রিক এটি এবং সংযুক্ত আমিরাতের প্রথম বোলার হিসেবে হ্যাটট্রিক।

৫ অঘটন

১৬ অক্টোবর, ২০২২ টি-২০ বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচে শ্রীলংকাকে ৫৫ রানে হারিয়ে চমকে দেয় নামিবিয়া এবং ১৭ অক্টোবর ২০২২ বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন উইন্ডিজকে ৪২ রানে পরাজিত করে স্কটল্যান্ড। টি-২০ বিশ্বকাপে এর আগেও এমন অপ্রত্যাশিত পাঁচটি অঘটনগুলো হলো-

সাল

জয়ী

পরাজিত

ফলাফল

২০০৭

জিম্বাবুয়ে

অস্ট্রেলিয়া

৫ উইকেটে

২০০৭

বাংলাদেশ

উইন্ডিজ

৬ উইকেটে

২০০৯

নেদারল্যান্ডস

ইংল্যান্ড

৪ উইকেটে

২০১৪

নেদারল্যান্ডস

ইংল্যান্ড

৪৫ রানে

২০১৬

আফগানিস্তান

ইংল্যান্ড

৬ রানে

 

প্রাইজমানি (মার্কিন ডলার)

 

চ্যাম্পিয়ন

= ১,৬০০,০০০

রানার্স আপ

= ৮০০,০০০

সেমি ফাইনাল থেকে বাদ (২ x ৪০০,০০০)

= ৮০০,০০০

সুপার ১২ জয়ী (৩০ ম্যাচ x ৪০,০০০)

= ১,২০০,০০০

সুপার ১২ বাদ (৮ x ৭০,০০০)

= ৫৬০,০০০

প্রথম পর্বে ম্যাচ জয়ী (১২ x  ৪০,০০০)

= ৪৮০,০০০

প্রথম পর্ব থেকে বাদ (৪ x ৪০,০০০)

= ১৬০,০০০

মোট পুরস্কার

= ৫,৬০০,০০০

কনিষ্ঠ খেলোয়াড়

১৬ অক্টোবর, ২০২২ টি-২০ বিশ্বকাপে রেকর্ড গড়েন ভারতে জন্মগ্রহণ করা আরব আমিরাতের ক্রিকেটার আয়ান আফজাল খান। নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে মাঠে নেমেই ১৬ বছর ৩৩৫ দিনে সবচেয়ে কম বয়সি ক্রিকেটার হিসেবে বিশ্বকাপের অভিষেকে নাম লেখান। এতদিন সবচেয়ে কম ১৭ বছর ৫৫ দিন বয়সে টি-২০ বিশ্বকাপ খেলার রেকর্ড ছিল পাকিস্তানের বোলার মোহাম্মদ আমিরের।

নারী এশিয়া কাপ ২০২২

আয়োজন: ৮ম • সময়কাল: ১-১৬ অক্টোবর ২০২২ স্বাগতিক: বাংলাদেশ • ভেন্যু: সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম • সংস্করণ: টি-২০ • মোট দল ৭টি- বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলংকা, মালয়েশিয়া, থাইল্যান্ড এবং সংযুক্ত আরব আমিরাত • মোট ম্যাচ: ২৪ • চ্যাম্পিয়ন: ভারত (৭ম বার) • রানার্স আপ: শ্রীলংকা • সর্বাধিক রান: জেমিমাহ রদ্রিগেজ (২১৭); ভারত • সর্বাধিক উইকেট: দিপ্তি শর্মা (১৩); ভারত • ম্যান অব দ্য সিরিজ: দিপ্তি শর্মা; ভারত।

রোল অব অনার

সাল

সংস্করণ

স্বাগতিক

চ্যাম্পিয়ন

রানার্স আপ

২০০৪

ওয়ানডে

শ্রীলংকা

ভারত

শ্রীলংকা

২০০৫-৬

ওয়ানডে

পাকিস্তান

ভারত

শ্রীলংকা

২০০৬

ওয়ানডে

ভারত

ভারত

শ্রীলংকা

২০০৮

ওয়ানডে

শ্রীলংকা

ভারত

শ্রীলংকা

২০১২

টি-২০

চীন

ভারত

পাকিস্তান

২০১৬

টি-২০

থাইল্যান্ড

ভারত

পাকিস্তান

২০১৮

টি-২০

মালয়েশিয়া

বাংলাদেশ

ভারত

২০২২

টি-২০

বাংলাদেশ

ভারত

শ্রীলংকা

অভিষেকেই হ্যাটট্রিক

৬ অক্টোবর ২০২২, সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে নারী এশিয়া কাপে মালয়েশিয়ার বিপক্ষে অভিষেক টি-২০তেই বাংলাদেশের ফারিহা ইসলাম হ্যাটট্রিক করেন। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এটি বাংলাদেশের তৃতীয় হ্যাটট্রিক। ফারিহার আগে মেয়েদের আন্তর্জাতিক টি-২০তে বাংলাদেশের হয়ে হ্যাটট্রিক করেন লেগ স্পিনার ফাহিমা খাতুন। আর ২০১৬ সালে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডেতে হ্যাটট্রিক করেন আরেক লেগ স্পিনার রুমানা আহমেদ।

শততম উইকেট

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বাংলাদেশের প্রথম নারী ক্রিকেটার হিসেবে জাহানারা আলম ১০০ উইকেট নেন। ১০ অক্টোবর ২০২২ শ্রীলংকার বিরুদ্ধে নারী এশিয়া কাপ টি-২০ ক্রিকেটে চামারি আত্তাপাত্তুকে আউট করে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে উইকেটের সেঞ্চুরি। করেন। ৪৭ ওয়ানডে ক্রিকেটে ৪৪ উইকেট এবং ৫৭ টি-২০ ম্যাচে ৫৬ উইকেট নেন।

বিশ্বকাপ ফুটবল ২০২২

বিশ্বকাপের ৮ গ্রুপ

A.  কাতার, ইকুয়েডর, সেনেগাল ও নেদারল্যান্ডস।

B. ইংল্যান্ড, ইরান, যুক্তরাষ্ট্র ও ওয়েলস ।

C. আর্জেন্টিনা, সৌদি আরব, মেক্সিকো ও পোল্যান্ড ।

D. ফ্রান্স, ডেনমার্ক, তিউনিসিয়া ও অস্ট্রেলিয়া ।

E. স্পেন, জার্মানি, জাপান ও কোস্টারিকা ।

F. বেলজিয়াম, কানাডা, মরক্কো ও ক্রোয়েশিয়া ।

G. ব্রাজিল, সার্বিয়া, সুইজারল্যান্ড ও ক্যামেরুন ।

H. পর্তুগাল, ঘানা, উরুগুয়ে ও দক্ষিণ কোরিয়া।

খেলা হবে যে স্টেডিয়ামে

কাতার বিশ্বকাপ ফুটবলের ৬৪টি খেলা অনুষ্ঠিত হবে ৫টি শহরের ৮টি স্টেডিয়ামে।

নাম

অবস্থান

ম্যাচ

লুসাইল আইকনিক স্টেডিয়াম

লুসাইল

১০

আল-বায়েত স্টেডিয়াম

আল খোর

স্টেডিয়াম ৯৭৪

দোহা

আল-তুমামা স্টেডিয়াম

দোহা

এডুকেশন সিটি স্টেডিয়াম

দোহা

আহমেদ বিন আলী স্টেডিয়াম

উম আল আফেই

খলিফা আন্তর্জাতিক স্টেডিয়াম

দোহা

আল-জানোব স্টেডিয়াম

আল ওয়াকরাহ

ফিফা বিশ্বকাপ

১৯৭০ সালের পর তৈরি হয় বর্তমান ফিফা ওয়ার্ল্ড কাপ ট্রফি। ইতালীয় ভাস্কর সিলভিও গাজ্জানিগার নকশায় নির্মিত এ ট্রফিটিই এখন দেওয়া হয় বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের হাতে। ১৮ ক্যারেট খাঁটি সোনায় তৈরি ট্রফিটির ভিত্তি দুই স্তরের মূল্যবান ম্যালাকাইট দিয়ে তৈরি, যার নিচের দিকে ১৯৭৪ থেকে সব বিশ্বকাপ জয়ী দেশের নাম ও সাল গ্রোথিত রয়েছে।

নাম:                   ফিফা ওয়ার্ল্ড কাপ

উন্মোচন:             ১৯৭৪ সালে

ওজন:                 ৬.১৪২ কেজি (এর মধ্যে প্রায় ৫ কেজি স্বর্ণ)

উচ্চতা:                ৩৬.৫ সেন্টিমিটার

ভাস্কর:                সিলভিও গাজ্জানিগা, ইতালি

নকশার মূল কথা: বিজয়ের মুহূর্তে দুজন অ্যাথলেটের শরীর বাকিয়ে বিশ্বজয়ের চেষ্টা।

এক নজরে বিশ্বকাপ ফুটবল

ফাইনাল: ২১টি, স্বাগতিক দেশ: ১৭টি, অংশগ্রহণকারী দেশ: ৭৯টি, চ্যাম্পিয়ন দেশ: ৮টি, মোট ম্যাচ: ৯০০ টি।

আয়োজন

সাল

স্বাগতিক

দল

ম্যাচ

গোল

চ্যাম্পিয়ন

রানার্স আপ

জয়ী অধিনায়ক

১ম

১৯৩০

উরুগুয়ে

১৩

১৮

৭০

উরুগুয়ে

আর্জেন্টিনা

জোসে নাসাজ্জি

২য়

১৯৩৪

ইতালি

১৬

১৭

৭০

ইতালি

চেকোস্লোভাকিয়া

সিয়েম্পিরো কম্বি

৩য়

১৯৩৮

ফ্রান্স

১৫

১৮

৮৪

ইতালি

হাঙ্গোরি

জিওসেপ্পো মিয়াজ্জা

৪র্থ

১৯৫০

ব্রাজিল

১৩

২২

৮৮

উরুগুয়ে

ব্রাজিল

অবদুলিও ভারেলা

৫ম

১৯৫৪

সুইজারল্যান্ড

১৬

২৬

১৪০

পশ্চিম জার্মানি

হাঙ্গোরি

ফ্রিংজ ওয়াল্টার

৬ষ্ঠ

১৯৫৮

সুইডেন

১৬

৩৫

১২৬

ব্রাজিল

সুইডেন

হিলদেরালদো ভেল্লিনি

৭ম

১৯৬২

চিলি

১৬

৩২

৮৯

ব্রাজিল

চেকোস্লোভাকিয়া

মাউরো রামোস

৮ম

১৯৬৬

ইংল্যান্ড

১৬

৩২

৮৯

ইংল্যান্ড

পশ্চিম জার্মানি

ববি মূর

৯ম

১৯৭০

মেক্সিকো

১৬

৩২

৯৫

ব্রাজিল

ইতালি

কার্লোস আলবার্তো টোরেস

১০ম

১৯৭৪

পশ্চিম জার্মানি

১৬

৩৮

৯৭

পশ্চিম জার্মানি

নেদারল্যান্ডস

ফ্রান্স বেকেনবাওয়ার

১১তম

১৯৭৮

আর্জেন্টিনা

১৬

৩৮

১০২

আর্জেন্টিনা

নেদারল্যান্ডস

ড্যানিয়েল প্যাসারোলা

১২তম

১৯৮২

স্পেন

২৪

৫২

১৪৬

ইতালি

পশ্চিম জার্মানি

দিনো জফ

১৩তম

১৯৮৬

মেক্সিকো

২৪

৫২

১৩২

আর্জেন্টিনা

পশ্চিম জার্মানি

দিয়াগো ম্যারাডোনা

১৪তম

১৯৯০

ইতালি

২৪

৫২

১১৫

পশ্চিম জার্মানি

আর্জেন্টিনা

লোথার ম্যাথিউস

১৫তম

১৯৯৪

যুক্তরাষ্ট্র

২৪

৫২

১৪১

ব্রাজিল

ইতালি

কার্লোস ডুঙ্গা

১৬তম

১৯৯৮

ফ্রান্স

৩২

৬৪

১৭১

ফ্রান্স

ব্রাজিল

দিদিয়ের দেশম

১৭তম

২০০২

জাপান ও দ. কোরিয়া

৩২

৬৪

১৬১

ব্রাজিল

জার্মানি

কাফু

১৮তম

২০০৬

জার্মানি

৩২

৬৪

১৪৭

ইতালি

ফ্রান্স

ফ্যাবিও ক্যানাভারো

১৯তম

২০১০

দক্ষিণ আফ্রিকা

৩২

৬৪

১৪৫

স্পেন

নেদারল্যান্ডস

ইকার ক্যাসিয়াস

২০তম

২০১৪

ব্রাজিল

৩২

৬৪

১৭১

জার্মানি

আর্জেন্টিনা

ফিলিপ লাম

২১তম

২০১৮

রাশিয়া

৩২

৬৪

১৬৯

ফ্রান্স

ক্রোয়েশিয়া

হুগো লরিস

Leave a Reply